মাদকের কারণে গ্রেপ্তার তিন পুলিশ ও এক রোহিঙ্গা | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 11.08.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

মাদকের কারণে গ্রেপ্তার তিন পুলিশ ও এক রোহিঙ্গা

চট্টগ্রামে এক মাদক কারবারিকে আটকের পর ‘টাকার বিনিময়ে' ছেড়ে দেওয়ায় তিন পুলিশসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৮০ হাজার ইয়াবাসহ আটক করা হয়েছে একজনকে৷

Yaba Tabletten Droge Speed

প্রতীকী ছবি

গ্রেপ্তার তিন পুলিশ সদস্য হলেন, সাতকানিয়া থানার ঢেমশা তদন্ত কেন্দ্রের কনস্টেবল আরাফাত নাজিম উদ্দিন, শাহ মোহাম্মদ হাসান ও বিমল চাকমা৷ বাকি তিনজন আরাফাত, বেল্লাল ও নেজাম৷

রোববার তাদের গ্রেপ্তার করার পর সোমবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয় বলে সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন৷

তিনি বলেন, "গ্রেপ্তার তিন পুলিশ সদস্য গত শুক্রবার ৪০০ ইয়াবাসহ এক মাদক কারবারিকে আটক করে৷ কিন্তু ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে তারা টাকার বিনিময়ে আপস করে৷ তারা মাদক কারবারির কাছ থেকে এক লাখ টাকা নিয়ে জব্দ করা ইয়াবাগুলো নিজেদের কাছে রেখে মাদক কারবারিকে ছেড়ে দেয়৷ বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় তিন পুলিশ সদস্যের কাছ থেকে এক লাখ টাকা এবং ৪০০ ইয়াবা জব্দ করা হয়৷”

 অন্যদিকে মঙ্গলবার বিকালে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের ৮-ইস্ট নম্বর বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি-৩৭ ব্লকে এ অভিযান চালিয়ে  ৮০ হাজার ইয়াবাসহ একজন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে বলে জানান এপিবিএন ৮ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক পুলিশ সুপার শিহাব কায়সার খান৷

আটক ৩০ বছর বয়সি মনসুর আলী উখিয়ার বালুখালী ৯ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি-১৪ ব্লকের বাসিন্দা জাফর আলমের ছেলে৷

আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে উখিয়া থানায় মামলা করা হয়েছে৷

এনএস/এসিবি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)  

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়