মাক্রোঁর আমন্ত্রণে প্যারিস গেলেন ৫০ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান | বিশ্ব | DW | 12.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জলবায়ু সম্মেলন

মাক্রোঁর আমন্ত্রণে প্যারিস গেলেন ৫০ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান

ফ্রান্সের প্যারিসে বছর দুয়েক আগে স্বাক্ষরিত জলবায়ু চুক্তির বাস্তবায়নে বিপুল অর্থের প্রয়োজন৷ যুক্তরাষ্ট্র এই চুক্তি থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেয়ায় অনেকে চুক্তির সাফল্য নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন৷

এই পরিস্থিতিতে বিশ্বকে আশ্বস্ত করতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ চুক্তি স্বাক্ষরের দুই বছর পূর্তিকে ঘিরে মঙ্গলবার একটি শীর্ষ সম্মেলনের আয়োজন করেছেন৷ প্যারিসের ঐ সম্মেলনে প্রায় ৫০টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান সহ বেসরকারি সংস্থা ও কোম্পানির প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন৷ ‘ওয়ান প্ল্যানেট' শীর্ষক ঐ সম্মেলনে যোগ দিতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্যারিস পৌঁছেছেন৷ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে, মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট, স্পেনের প্রধানমন্ত্রী এবং বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘের প্রধানরাও সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি৷ তবে প্যারিসের মার্কিন দূতাবাসের একটি প্রতিনিধি দল সেখানে উপস্থিত থাকবেন৷ এছাড়া মাইক্রোসফটের বিল গেটস, ক্যালিফোর্নিয়ার সাবেক গভর্নর আর্নল্ড শোয়ারৎসেনেগার, অভিনেতা লিওনার্দো দ্য ক্যাপ্রিও, ক্যালিফোর্নিয়ার বর্তমান গভর্নর জেরি ব্রাউন, স্পেসএক্স সংস্থার এলোন মাস্ক উপস্থিত থাকবেন৷

গত জুনে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্যারিস চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেয়ার ঘোষণা দেন৷ যদিও নিয়ম অনুযায়ী ২০২০ সালের আগে আনুষ্ঠানিকভাবে সেটি সম্ভব হবে না৷ অবশ্য ট্রাম্প তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁ৷ মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিবিএসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‘আমি নিশ্চিত থেকে আমার বন্ধু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আগামী কয়েক মাস বা বছরের মধ্যে তাঁর মন পরিবর্তন করবেন, আমি তা-ই আশা করি৷'' তিনি ট্রাম্পকে ইতিহাসের প্রতি তাঁর দায়িত্বের কথা স্মরণ করিয়ে দেন৷

প্যারিস চুক্তি থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা ছাড়াও মার্কিন প্রেসিডেন্ট জলবায়ু গবেষণা খাতে বরাদ্দ কমাতে কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন৷ এছাড়া ‘সবুজ জলবায়ু তহবিল'-এ যুক্তরাষ্ট্র যে তিন বিলিয়ন ডলার দেয়ার অঙ্গীকার করেছিল সেখান থেকে বাকি দুই বিলিয়ন ডলার আর দেবে না বলে জানিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন৷

এদিকে, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁ জলবায়ু নিয়ে গবেষণা করতে১৩ জন মার্কিন বিজ্ঞানীকে অর্থ সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন৷ ‘ওয়ান প্ল্যানেট' সম্মেলনের আগে তিনি ঐ ১৩ জন সহ মোট ১৮ জন বিজ্ঞানীর নাম প্রকাশ করেন৷ তাঁরা আগামী তিন থেকে পাঁচ বছর ফ্রান্সে জলবায়ু নিয়ে গবেষণা করবেন৷

এছাড়া মঙ্গলবারের সম্মেলনে মাক্রোঁ বৈশ্বিক উষ্ণায়ন রোধে প্রয়োজনীয় অর্থের যোগান দিতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাবেন৷

জাতিসংঘের জলবায়ু বিষয়ক প্রধান প্যাট্রিসিয়া এস্পিনোসা মনে করেন, ‘‘বৈশ্বিক অর্থায়ন কাঠামোর সংস্কার এবং উন্নয়ন প্রকল্পগুলো কম কার্বন নির্গমনকারী, রেজিলিয়েন্ট ও টেকসই না করলে শুধু রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত দিয়ে কাজ হবে না৷'' এখন থেকে বেসরকারি খাতে নেয়া সব সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়ায় জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়টি বিবেচনায় রাখতে হবে বলেও মনে করেন তিনি৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন