মসজিদে নাচের ভিডিও, লাইকি তারকা গ্রেপ্তার | বিশ্ব | DW | 10.08.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

মসজিদে নাচের ভিডিও, লাইকি তারকা গ্রেপ্তার

মসজিদে এক নারীকে নিয়ে নাচের ভিডিও তৈরি করায় এক সোশ্যাল মিডিয়া তারকাকে গ্রেপ্তার করেছে বাংলাদেশ পুলিশ৷ সোমবার এক সংবাদ সম্মেলন থেকে জানা গেছে এই তথ্য৷

মডেল মসজিদ (ফাইল ফটো)

মডেল মসজিদ (ফাইল ফটো)

নাচের ভিডিও ক্লিপটি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়লে বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ৷ গ্রেপ্তারকৃত লাইকি তারকা ইয়াসিন-এর বয়স বিশ বছর৷ তাকে রাজধানী ঢাকা থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত দাউদকান্দিতে তার নিজের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ 

আলোচিত ভিডিওতে থাকা নারীকেও খোঁজা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ৷

ইয়াসিন গতমাসে ভিডিওটি ধারণ করে তার লাইকি অ্যাকাউন্টে প্রকাশ করেন৷ ভিডিওতে তাকে এবং এক নারীকে দাউদকান্দি মডেল মসজিদের সিঁড়িতে নাচতে দেখা গেছে৷ বাংলাদেশ সরকার সম্প্রতি এরকম পঞ্চাশটি মসজিদ তৈরি করেছে৷

ইয়াসিনের লাইকি অ্যাকাউন্ট অবশ্য ভিডিও প্রকাশিত হওয়ার পর সাসপেন্ড হয়ে যায়৷ পুলিশ জানিয়েছে, ভিডিও শেয়ারিং সাইটটিতে ইয়াসিনের ৯৪০,০০০-এর বেশি অনুসারী ছিল৷

এই বিষয়ে কুমিল্লার পুলিশ প্রধান আমিনুল ইসলাম ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘‘মানুষের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ইয়াসিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷''

সাংবিধানিকভাবে ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশের পুলিশ এর আগেও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার দায়ে অনেককে গ্রেপ্তার করেছে৷ গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে অনেক হিন্দু এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অনুসারী রয়েছেন যাদের বিরুদ্ধে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন অবমাননা কিংবা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগ তোলা হয়েছে৷ 

ভিডিও দেখুন 04:17

বেশি ফলোয়ার হলেই কি প্রতিষ্ঠিত মডেল?

ফেসবুকে মহানবি মোহাম্মদ (সাঃ)-কে নিয়ে কটূক্তি করায় এক হিন্দু ব্যক্তিকে গত সেপ্টেম্বরে সাত বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়৷

এছাড়া, গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকজন ধর্মনিরপেক্ষ ব্লগারের বিরুদ্ধেও ধর্মনিন্দার অভিযোগ আনা হয়েছে, যাদের অনেকে কারাভোগ করেছেন কিংবা উগ্রপন্থি ইসলামিস্টদের হামলার শিকার হয়েছেন৷

এআই/এসিবি (এএফপি)