মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার মধ্যে সুস্থির দুবাই ও কাতার | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 28.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার মধ্যে সুস্থির দুবাই ও কাতার

মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে যখন বিক্ষোভ ও রাজনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে তখন সেখানে ব্যতিক্রম দুবাই এবং কাতার৷

default

দুবাই ও কাতারে এমন দৃশ্য দেখা যায়নি

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ বাহরাইনে বিশ্বের গাড়ি দৌড়ের সবচেয়ে বড় আসর ফর্মুলা ওয়ান গ্রঁ প্রি হবার কথা ছিল এ মাসের ১৩ তারিখে৷ কিন্তু মানামায় সরকার বিরোধী বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনীর হামলার কারণে ফেব্রুয়ারির ২১ তারিখে এই প্রতিযোগিতা বাতিল করা হয়৷

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য দেশে যখন সহিংসতা দেখা যাচ্ছে, তখন সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কাতার পশ্চিমা বিশ্বের প্রশংসা কুড়াচ্ছে৷ যুক্তরাষ্ট্র এবং ফ্রান্স এর সঙ্গে তারাও লিবিয়ায় গাদ্দাফি বাহিনীর বিরুদ্ধে বিমান হামলায় অংশ নিচ্ছে৷

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংযুক্ত আরব আমিরাতের একজন সদ্য স্নাতক বলেছেন, আমরা রাজনীতি নিয়ে কথা বলতে চাইনা৷ আমরা আরব জগতের অন্যান্য দেশের তরুণদের সঙ্গে ইন্টারনেটে যোগাযোগ করি৷ আমরা দেখেছি, আমাদের আগ্রহের বিষয়গুলো একই ধরনের৷ তবে আমাদের সমস্যাগুলো একরকম নয়৷

দুবাই স্থানীয় নব দম্পতিদের ২০ হাজার ডলার এবং বাড়ি কেনার জন্য সহজ শর্তে ঋণ দেয়৷ আব্দুল রহমান একজন প্রকৌশলী, যিনি সরকারি কর্মী৷ তিনি জানালেন, এই দেশের সরকার এবং জনগণের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা৷ তিনি বলেন, সরকার দেশটির জনগণের দেখভাল করে গুরুত্বসহকারে৷

দুবাই এর সেভেন স্টার হোটেল এবং বুর্জ খলিফা অন্যান্য আধুনিক স্থাপনা বিশ্বদরবারে তুলে ধরে দুবাইকে৷

অন্যদিকে তেল সমৃদ্ধ মধ্যপ্রাচ্যের আরেকটি দেশ কাতার৷ এই দেশের জনসংখ্যা খুব বেশি নয়৷ মধ্যপ্রাচ্যের মধ্যে কাতারই প্রথম দেশ যে দেশটি আরব লিগকে সমর্থন জানিয়ে লিবিয়ায় উড়াল নিষেধাজ্ঞার পক্ষে প্রচার চালায়৷ প্রতিদিন ৮ লাখ ব্যারেল প্রাকৃতিক গ্যাস রপ্তানি করে বিশ্বে শীর্ষ স্থানে রয়েছে এই দেশটি৷ সম্প্রতি বাহরাইনের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে গাল্ফ ফোর্সে কাতারের সেনারা যৌথভাবে অংশ নেন৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন