মচকালেও সহজে ভাঙতে চাইছেন না লাশেট | বিশ্ব | DW | 29.09.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

মচকালেও সহজে ভাঙতে চাইছেন না লাশেট

নির্বাচনে হেরেও জার্মানির আগামী সরকারের নেতৃত্ব দিতে চাইছেন আরমিন লাশেট৷ তবে আগামী সরকারের সম্ভাব্য শরিক হিসেবে সবুজ দল ও এফডিপি আপাতত নিজেদের মধ্যে আলোচনায় ব্যস্ত৷

জার্মানির সংসদ নির্বাচনে ইউনিয়ন শিবির দ্বিতীয় স্থান পেলেও চ্যান্সেলর পদপ্রার্থী আরমিন লাশেট আগামী জোট সরকারের নেতৃত্ব দেবার আশা এখনো ত্যাগ করছেন না৷ দলের মধ্যে বেড়ে চলা সমালোচনার মুখেও তিনি এখনো নিজের কর্তৃত্ব আঁকড়ে ধরার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন৷ মঙ্গলবার শিবিরের সংসদীয় দলের বৈঠকে তিনি বুন্ডেসটাগে শিবিরের আগামী নেতা বাছাইয়ের ক্ষেত্রে নিজের লক্ষ্য পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন৷ সিডিইউ দলের এক হেরে যাওয়া সংসদ সদস্য সরাসরি লাশেটের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন৷ এ যাত্রা টিকে গেলেও লাশেটের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে বলে দলের অনেকে মনে করছেন৷

‘মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা' হিসেবে লাশেট মঙ্গলবার আরও ধাক্কা খেয়েছেন৷ সিডিইউ দলের নেতা হিসেবে তিনি এখনো সরাসরি হার স্বীকার না করলেও বাভেরিয়ার সিএসইউ দলের নেতা মার্কুস স্যোডার প্রকাশ্যে ইউনিয়ন শিবিরের পরাজয় মেনে নিয়ে বিজয়ী এসপিডি দলের নেতা ওলাফ শলৎসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন৷ শলৎসই চ্যান্সেলর হিসেবে আগামী জোট সরকারের নেতৃত্ব দেবেন, এমন সম্ভাবনাই উজ্জ্বল বলে তিনি মনে করেন৷ এসপিডি সেই কাজে ব্যর্থ হলে তবেই ইউনিয়ন শিবির সক্রিয় হতে পারে বলে স্যোডার মনে করেন৷

এমন ঝড়ঝাপটার মধ্যেও লাশেট আগামী কয়েক দিনের মধ্যে পরিবেশবাদী সবুজ দল ও উদারপন্থি এফডিপি দলের সঙ্গে প্রাথমিক আলোচনায় বসতে চান বলে জানিয়েছেন৷ তার মতে, তার শিবির নির্বাচনে না জিতলেও এমন বিভ্রান্তিকর পরিস্থিতিতে এই দুই দলের সঙ্গে কথা বলা উচিত৷ সব জনমত সমীক্ষা অনুযায়ী সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ লাশেটকে আগামী চ্যান্সেলর হিসেবে দেখতে না চাইলেও তিনি দমার পাত্র নন৷

এদিকে ‘কিংমেকার' হিসেবে সবুজ দল ও এএফডিপি সবার আগে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে আগামী সরকারের শরিক হিসেবে মতপার্থক্য যতটা সম্ভব দূর করে এক অভিন্ন কর্মসূচির পথে এগোনোর চেষ্টা করছে৷ মঙ্গলবারই দুই দলের শীর্ষ নেতারা প্রথম বৈঠক করেছেন৷ আগামী সরকারের চালকের আসনে তারা শেষ পর্যন্ত এসপিডি নেতা শলৎস বা ইউনিয়ন নেতা লাশেটের মধ্যে কাকে অগ্রাধিকার দেন, তার উপর আগামী সরকারের রূপরেখা নির্ভর করবে৷ সবুজ দল এসপিডি-র সঙ্গে জোট বাঁধতে আগ্রহী হলেও এফডিপি এতকাল ইউনিয়ন শিবিরকেই পছন্দের সহযোগী হিসেবে তুলে ধরেছে৷

এসপিডি নেতা ওলাফ শলৎসও হাত গুটিয়ে বসে নেই৷ তিনি সবুজ দল ও এফডিপি-র সঙ্গে জোট সরকার গড়ার উদ্যোগ নিতে বদ্ধপরিকর৷ তার মতে, গেশের উন্নয়ন সম্পর্কে তিন দলের ভিন্ন আইডিয়া থাকলেও অনেক ক্ষেত্রে মিলও রয়েছে৷ এসপিডি দলের এক নেতা জানিয়েছেন, চলতি সপ্তাহেই দুই দলের সঙ্গে আলোচনার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে৷ উল্লেখ্য, মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে শলৎস ব্রিটিশ সাংবাদিকদের সঙ্গে ইংরিজি ভাষায় কথা বলতে গিয়ে বলেন, জার্মানির মানুষ সিডিইউ দলকে সংসদের বিরোধী আসনে দেখতে চায়৷

এসবি/কেএম (ডিপিএ, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়