1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ছবি: DW

ভয়াবহ ভবিষ্যৎ পৃথিবীর সামনে

সাগর সরওয়ার
১২ মার্চ ২০০৯

আমাদের বিশ্বের সামনে রয়েছে খুব কম সময় – সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি প্রসঙ্গে কথাগুলো বললেন আইপিসিসি বা জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত প্যানেলের প্রধান রাজেন্দ্র পাচাউরি৷

https://p.dw.com/p/HAuH

এর আগে বিভিন্ন সময়ে করা সমীক্ষা বা গবেষণার পর বলা হয়েছিল ২১০০ সাল নাগাদ পৃথিবীর সমুদ্রপুষ্ঠের উচ্চতা ১৮ থেকে ৫৯ সেন্টিমিটার বা সাত থেকে ২৩ ইঞ্চি বৃদ্ধি পাবে৷ ফলে পৃথিবীর সমুদ্র উপকূলবর্তী বেশীরভাগ এলাকা পানির তলে তলিয়ে যাবে৷ কিন্তু কোপেনহেগেনে অনুষ্ঠিত বিশেষজ্ঞ সম্মেলনে সর্বশেষ গবেষণার ফলাফলে জানানো হলো আরও ভয়ঙ্কর তথ্য৷

এই সম্মেলনে বলা হয়েছে, আগের যে গবেষণা তাঁরা করেছিলেন, তার থেকেও ভয়াবহ ভবিষ্যৎ পৃথিবীর সামনে৷ নতুন গবেষণায় দেখা যাচ্ছে,একই সময়ের মধ্যে বিশ্বের সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ৭৫ থেকে ১৯০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পাবে৷ এমনকী যদি সবকিছু ঠিকঠাকও থাকে এবং গ্রীনহাউস গ্যাস নির্গমন বেশ ভালোমাত্রায় কমানোও হয়, তাহলেও ২১০০ সাল নাগাদ সমুদ্রের উচ্চতা বাড়বে এক মিটার৷

এক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও ভারত মহাসাগরের উপকূলবর্তী দেশগুলো কিংবা আফ্রিকার দেশগুলোই বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলেই মনে করা হচ্ছে৷ কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, হঠাৎ করে দুই বছর আগের হিসাবটি পাল্টে গেলো কেন? উত্তরে জানানো হলো, মূলত মেরু অঞ্চলের বরফ অতিমাত্রায় গলতে থাকার কারণেই এই ভিন্ন চিত্র৷

বিশ্বের প্রায় ৬০ কোটি মানুষ বসবাস করছে সমুদ্র উপকূলীয় নিবিড় অঞ্চলে৷ নতুন এই গবেষণায় দেখা গিয়েছে, দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলাদেশ৷ প্রায় দেড় কোটি মানুষ বাস্তুচ্যুত হবে৷ মোট আয়তনের শতকরা ১৭ ভাগ জমি পানির তলে ডুবে যাবে৷

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

রাশিয়া এলজিবিটিকিউ

এলজিবিটিকিউ নিয়ে পুটিনের নতুন ফরমান

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান