1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
জাতিসংঘের বৈঠকে অবিলম্বে উত্তেজনা কমাবার কথা বলেছে ভারত। ছবি: Timothy A. Clary/AFP

ভারত কোনো পক্ষে নেই, প্রশংসা করলো রাশিয়া

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২

পরিস্থিতি বিপজ্জনক। অবিলম্বে উত্তেজনা কমাতে ব্যবস্থা নিতে হবে। রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের পর প্রতিক্রিয়া ভারতের।

https://p.dw.com/p/47VMH

রাশিয়া-ইউক্রেন দ্বন্দ্বে এখনো পর্যন্ত ভারত কোনো পক্ষকেই সমর্থন করেনি। ভারতের ঘোষিত অবস্থান হলো, সব পক্ষকেই সংযত থাকতে হবে।  তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুটিন ইউক্রেন আক্রমণের সিদ্ধান্ত নেয়ার পর জাতিসংঘের বৈঠকে ভারত জানিয়েছে, ''এই পরিস্থিতি একটা বড় সংকটের দিকে যেতে পারে। খুব সাবধানে পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে। না হলে এই অঞ্চলের শান্তি ব্যাহত হবে।'' জাতিসংঘে ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি টি এস তিরুমূর্তি এই কথা বলেছেন।

তিনি বলেছেন, ''অবিলম্বে উত্তেজনা কমাতে হবে। সকলে যেন তাদের স্বার্থ ভুলে উত্তেজনা কমাবার দিকে নজর দেন।'' তবে এবারও ভারত কোনো পক্ষকে সমর্থন বা সমালোচনার পথে হাঁটেনি।

রাশিয়ার প্রশংসা

ভারতের এই নীতির প্রশংসা করেছে রাশিয়া। রাশিয়ার দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স রোমান বাবুশকিন বলেছেন, ''ভারত একটা স্বাধীন ও নিরপেক্ষ অবস্থান নিয়েছে। আমরা ভারতের এই অবস্থানকে স্বাগত জানাই।'' তিনি জানিয়েছেন, এই সংঘাতে ভারত কোনো সহযোগী খুঁজে নিক, তা তারা চান না।

জাতিসংঘে ভারত সরাসরি রাশিয়ার নিন্দা করেনি। তারা বলেছে, এই সংঘাত ওই অঞ্চলে শান্তি ও সংহতি নষ্ট করবে।

বাবুশকিন বলেছেন, ভারত নিরপেক্ষ গুরুত্বপূর্ণ বিশ্ব শক্তি হিসাবে কাজ করেছে। তিনি এটাও জানিয়েছেন, ভারতই একমাত্র দেশ, যাদের রাশিয়া প্রযুক্তি দিয়ে সাহায্য করে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর সম্প্রতি ইউরোপ সফরে গেছিলেন। সেখানে তিনি বলেছেন, ইন্দো-প্যাসিফিকে চীনের কার্যকলাপের সঙ্গে ইউক্রেনে রাশিয়ার কার্যকলাপকে এক করে দেখা ঠিক হবে না। 

জিএইচ/এসজি (পিটিআই, দ্য ওয়্যার)

স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

বুধবারের সংঘাত ও একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশ তিনটি মামলা করেছে

ফের সংঘাতের রাজনীতি?

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান