ভারত এখন ‘স্পেস সুপারপাওয়ার′: মোদী | বিশ্ব | DW | 27.03.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

ভারত এখন ‘স্পেস সুপারপাওয়ার': মোদী

ভারতের বিজ্ঞানীরা বুধবার স্যাটেলাইট ধ্বংসকারী অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ ফলে ভারত এখন ‘স্পেস সুপারপাওয়ার' বা মহকাশ পরাশক্তিতে পরিণত হয়েছে বলে দাবি তাঁর৷

মহাকাশে ‘অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইল' বা এ-স্যাটের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে ভারত৷ যার মাধ্যমে দেশটির বিজ্ঞানীরা ৩০০ কিলোমিটার উচ্চতায় অবস্থিত একটি ‘লো অরবিট স্যাটেলাইট' ধ্বংস করতে সফল হয়েছেন৷ বুধবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক ভাষণে এমন ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী মোদী৷

দেশটির গণমাধ্যমে সরকারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, বুধবার স্থানীয় সময় ১১:১৬টায় এ-স্যাট মিসাইলটি মহাকাশে পাঠানো হয়৷ যা ‘লো আর্থ অরবিটে' আগে থেকেই অবস্থান করা  ভারতের একটি স্যাটেলাইটে আঘাত হানে৷ এই অভিযান পরিচালনায় সময় লেগেছে মাত্র ৩ মিনিট৷

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর ভাষণে এই অভিযানকে ‘মিশন শক্তি' নামে অভিহিত করেন৷ দেশটির ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের চেয়ারম্যান, ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার এবং ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের কর্মকর্তারা এর সমন্বয় করেন৷

‘স্পেস সুপারপাওয়ার'

এই অভিযানের মধ্য দিয়ে ভারত বিশ্বে ‘স্পেস সুপারপাওয়ার' বা মহাকাশ পরাশক্তি হিসেবে আবির্ভূত হলো বলে দাবি করেন মোদী৷ বলেন, চতুর্থ দেশ হিসেবে ভারত বিশ্বে এই বিশেষ আধুনিক ক্ষমতার অধিকারী হলো৷ এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া এবং চীন এমন সফলতা অর্জন করেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি৷ ভারতের জন্য এর চেয়ে বড় গর্বের বিষয় আর হতে পারে না বলেও জানান মোদী৷ টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে তিনি বলেন, ‘‘ এ-স্যাট মিসাইল মহাকাশ কর্মসূচিতে নতুন শক্তি যোগাবে৷'' কোনো ধরণের নেতিবাচক কাজে এর ব্যবহার করা হবে না বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি৷ ‘‘আমি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আশ্বস্ত করছি যে, এটি সম্পূর্ণভাবে ভারতের প্রতিরক্ষা নিরাপত্তার জন্য, কারো বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য নয়৷'' মোদীর টুইটার অ্যাকাউন্টেও তাঁর এই ভাষণ আপলোড করা হয়েছে৷ এ নিয়ে তিনি আলাদা দুটি টুইটও করেছেন৷ 

রাজনীতিবিদদের প্রতিক্রিয়া

১১ এপ্রিল শুরু হতে যাচ্ছে ভারতের জাতীয় নির্বাচন৷ তার আগে এই মিশনকে মোদী সরকারের বড় এক সফলতা হিসেবে উদযাপনের সুযোগ হাতছাড়া করছেন না বিজেপির নেতারা৷ দলটির সভাপতি অমিত শাহ এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘‘দৃঢ়সঙ্কল্প নেতৃত্বই পারে একটি দেশকে শক্তিশালী করতে৷ মিশন শক্তির মাধ্যমে ভারত এখন এলিট মহাকাশ শক্তির পাশে জায়গা করে নিয়েছে৷''

তিনি এজন্য মোদীর প্রশস্তি করে আরেকটি টুইট করেছেন৷ লিখেছেন, ‘‘এটি সব ভারতীয়র জন্য একটি গর্বের মুহূর্ত৷ আমি মিশন শক্তির সাথে জড়িত সব বিজ্ঞানীকে অভিনন্দন জানাই৷ সেই সঙ্গে ভারতীয় জনগণের আত্মরক্ষা ও সব দিক থেকে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শ্রি নরেন্দ্র মোদীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি৷''

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও ভারতের এই সফলতা নিয়ে টুইট করেছেন৷ তবে তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশটির ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেইশন বা ডিআরডিওকে৷ এই টুইটে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ওয়ার্ল্ড থিয়েটার ডে'র শুভেচ্ছা জানান৷

এফএস/জেডএইচ (টাইমস অফ ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমস)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন