1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
A burnt carriage of a passenger train is pictured at the Nellore railway station, in the southern Indian state of Andhra Pradesh July 30, 2012. A Chennai-bound express train caught fire on Monday in a pre-dawn accident in Andhra Pradesh, killing at least 30 passengers. The fire broke out in a coach of the Tamil Nadu Express near Nellore, around 500 kilometres (311 miles) from Hyderabad, when most of the passengers were asleep. REUTERS/Stringer (INDIA - Tags: DISASTER TRANSPORT TPX IMAGES OF THE DAY)
ছবি: Reuters

ভারতে, ট্রেন, দুর্ঘটনা, মৃত, ৪৭

৩০ জুলাই ২০১২

চেন্নাইগামী নতুন দিল্লি-তামিলনাড়ু এক্সপ্রেস ট্রেনে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোরের কাছে জীবন্ত দগ্ধ হয়ে মারা যায় কমপক্ষে ৪৭ জন যাত্রী৷ আহত প্রায় ৩০৷ নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%A8-%E0%A6%A6%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%98%E0%A6%9F%E0%A6%A8%E0%A6%BE-%E0%A6%AE%E0%A7%83%E0%A6%A4-%E0%A7%AA%E0%A7%AD/a-16131219

সোমবার ভোর চারটা নাগাদ একট বগিতে আগুন লেগে ঘটনাটি ঘটে বলে জানিয়েছেন নেল্লোরের জেলা কালেক্টর শ্রীধর৷ অগ্নিকাণ্ডের প্রাথমিক কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট৷ তবে ঐ কামরায় কোনো দাহ্য পদার্থ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল কিনা – সেটা পরীক্ষা করে দেখছেন ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা৷ তবে রেল নিরাপত্তা এবং রক্ষণাবেক্ষণে গাফিলতির অভিযোগটি অতীতের মতো এবারেও উঠেছে৷

জানা গেছে, কোচটিতে প্রায় ৭০টি আসন ছিল৷ প্রত্যক্ষদর্শীদের কথায়, সে সময় যাত্রীরা সব ঘুমিয়ে ছিলেন৷ আগুন লেগেছে, এটা বোঝার সঙ্গে সঙ্গেই ট্রেনটি থামানো হয় এবং দ্রুত যাত্রীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে আনা হয়৷ নেল্লোরের সহকারী স্টেশন মাস্টার জলন্ত ঐ ট্রেনটি থামান বলেও জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা৷ এরপরও অবশ্য কোচের ভেতর দ্রুত ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ায় অনেক যাত্রী আটকে পড়ে, দরজা দু'টিও ঠিকমতো খোলা যায় নি৷

আহতদের স্থানীয় সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং দুর্ঘটনাস্থলে উদ্ধারকর্মীরা কাজ চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন জেলা কালেক্টর শ্রীধর৷

এদিকে, ভারতের রেলমন্ত্রী ইতিমধ্যেই দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন৷ মৃতদের জন্য তিনি ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেবার কথা ঘোষণা করেন বলে প্রকাশ৷
 

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুন দিল্লি
সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Symbolbild I Energiearmut I Hohe Energiepreise

‘গ্যাস সংকটের সহসা সমাধান নেই’

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান