ভারতের কূটনীতিককে ডেকে পাঠালো পাকিস্তান | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 28.04.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

ভারতের কূটনীতিককে ডেকে পাঠালো পাকিস্তান

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ভারতের হামলায় এক নারী নিহত ও আট বছরের এক শিশুর আহত হওয়ার প্রতিবাদ জানাতে ভারতের এক কূটনীতিককে সোমবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ডেকে পাঠানো হয়৷

পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সীমান্তের কাছে অবস্থিত জনদ্রোত ও খুইরাত্তা গ্রামে মর্টার ও গোলা নিক্ষেপ করেছে ভারতীয় বাহিনী৷ তাদের বিরুদ্ধে সাধারণ নাগরিকদের ‘ইচ্ছাকৃতভাবে লক্ষ্য’ বানানোর অভিযোগও এনেছে পাকিস্তানি বাহিনী৷ 

ভারতের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি৷

পাকিস্তানি কাশ্মীরের শীর্ষ আঞ্চলিক কর্মকর্তা সরদার মাসুদ খান বলছেন, করোনা মহামারি শুরুর পর ঐ এলাকায় ভারতীয় বাহিনীর যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের মাত্রা বেড়েছে৷ 

উচ্চগতির ইন্টারনেটে নিষেধাজ্ঞা বাড়লো

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে উচ্চগতির ফোর-জি মোবাইল ইন্টারনেটের উপর নিষেধাজ্ঞা ১১ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে৷ 

‘সন্ত্রাসী হামলা’ বাড়ার অভিযোগ দেখিয়ে সোমবার এই সিদ্ধান্তের কথা জানায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ৷

গতবছরের আগস্ট মাসে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর সেখানে ইন্টারনেট বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল৷ গতমাসে তা খুলে দেয়া হলেও মানুষ এখন শুধু ধীরগতির টু-জি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন৷ ফলে চিকিৎসক ও শিক্ষার্থীরা সমস্যায় পড়ছেন বলে অভিযোগ করছেন৷ 

বিশেষ করে করোনার কারণে অনলাইনে আয়োজিত ওয়েবিনারে অংশ নিতে সমস্যা হচ্ছে বলে সম্প্রতি ডয়চে ভেলেকে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা৷ ধীরগতির কারণে শিক্ষার্থীদেরও অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে সমস্যা হচ্ছে৷

তবে কর্তৃপক্ষের দাবি, ‘উত্তেজক ভিডিও’ আপলোড, ডাউনলোড ও ছড়ানো প্রতিরোধে উচ্চগতির ইন্টারনেট বন্ধ রাখা প্রয়োজন৷

ধারভি ভাইড, এপি/জেডএইচ 

গত বছরের আগস্টের ছবিঘর দেখুন...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন