1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ড. শহিদুল আলমছবি: Harun Or Rashid Swapan

ব্লগ প্রতিযোগিতার নতুন বিচারক ড. শহিদুল আলম

৫ ডিসেম্বর ২০১১

ডয়চে ভেলের সেরা ব্লগ প্রতিযোগিতা ‘বেস্ট অব ব্লগ’ বা ববস-এর বাংলা ভাষার বিচারক হিসেবে নিমন্ত্রিত হয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাত আলোকচিত্রী ও ব্লগার শহিদুল আলম৷ আগামী এপ্রিলে এই দায়িত্ব পালন করতে উপস্থিত হবেন জার্মানিতে৷

https://p.dw.com/p/13MNb

বাংলাদেশের ফোটোগ্রাফির জগতে মাইল ফলক ‘দৃক্' ও দক্ষিণ এশিয়া ফোটোগ্রাফি ইনস্টিটিউট ‘পাঠশালা'-র স্থপতি ড. শহিদুল আলম ডয়চে ভেলের এই আমন্ত্রণে ভীষণ খুশি৷ অমায়িক ভাষায় তিনি বললেন, ‘‘একটু ভয় লাগছে৷ বিচারক হিসেবে অনেকবারই ছিলাম বিভিন্ন জায়গায়, কিন্তু ব্লগের ক্ষেত্রে কখনও হয়নি৷ নিজে ব্লগিং করি বহুদিন ধরে৷ কিন্তু ব্লগ সম্পর্কে খুব বেশি যে জানি তা জোর গলায় বলতে পারবো না৷ তবে মজা লাগছে৷''

দৃক্ মানে দৃষ্টি৷ এ দেখা ভাসাভাসা নয়, অনেক গভীরে গিয়ে দেখা৷ শহিদুল আলমের দৃকপাত তাই শুধু চোখ দিয়ে দেখা নয়, মন দিয়ে দেখা, মস্তিষ্ক দিয়ে দেখা৷ আর সেই দেখারই প্রকাশ তাঁর ছবিতে, লেখায়, তাঁর কর্মদ্যোগে৷ মানবাধিকারের পক্ষে, সুশীল সমাজের জোরালো কন্ঠ হিসেবে সক্রিয় দৃক্৷ সক্রিয় সমাজের নানা অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে৷ এমনকি, বাংলাদেশের গার্মেন্টস কর্মীদের দাবিদাওয়ার পক্ষেও সোচ্চার শহিদুলের এই অহিংস হাতিয়ার৷ প্রদর্শনী, সিগনেচার ক্যাম্পেন, ব্লগিং – নানাভাবে, নানা মাধ্যমে কাজ করে চলেছে এ প্রতিষ্ঠান৷ কিন্তু কেন?

আন্তর্জাতিকখ্যাত এই আলোকচিত্রীর পাল্টা-প্রশ্ন, ‘‘যখন তারা মাসিক ন্যূনতম আয় পাওয়ার জন্য রাস্তায় নামে, তখন তাদের ওপর বন্দুক চালানো হয়৷ এবং যে মানুষগুলো তাদের প্রতিনিধিত্ব করে, তাদেরকেও হেনস্থার শিকার হতে হয়৷ তাই এহেন বিচ্ছিন্ন অত্যাচারের একটা প্রতিবাদ রাখা তো খুব স্বাভাবিক – তাই না?''

Logo The Bobs 2011
ববস ২০১১’র লোগো

দৃক-এর প্রাণপুরুষ শহিদুল ছবি তুলে দেশে বিদেশে পুরস্কৃত হয়েছেন৷ আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে জুরির আসন অলঙ্কৃত করেছেন বহুবার৷ অথচ অনেকেই জানেন না যে, আদতে তিনিই হচ্ছেন বাংলাদেশের ব্লগিং জগতে প্রথম পথিকৃৎ৷ অবশ্য বরাবরই ড. আলম ব্লগ লিখেছেন ইংরেজিতে৷ সেটা অবশ্য বাংলা ব্লগিং-এর জগত থেকে তাঁকে দূরে রাখতে পারে নি৷ তাই তাঁর কাছেই জানতে চাই, বাংলা ব্লগের বর্তমান অবস্থাটা কেমন? শহিদুল বলেন, ‘‘আমি মনে করি বাংলা ব্লগ ইংরেজি ভাষার ব্লগের তুলনায় অনেক বেশি শক্তিশালী৷ তাছাড়া, এখন অনেকে ব্লগ লিখছেন৷ অনেক ধরনের কাজ হচ্ছে৷ ভালো ভালো কাজ৷ তবে এটা ঠিক যে ইংরেজি ভাষায় কাজ করাটা এখনও অনেক সহজ৷ খুব সহজেই সেই কাজ আন্তর্জাতিক স্তরে পৌঁছে দেওয়া যায়৷ তার ওপর বাংলাদেশে এখনও ইন্টারনেট সেভাবে ছড়ায় নি৷ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোতে পৌঁছায় নি এখনও৷ এছাড়া, প্রযুক্তির শ্রেণীগত সমস্যাগুলো তো আছেই৷ অবশ্য ইদানিং, এই প্রযুক্তির কারণেই আবার অনেক কিছু করা সম্ভব৷ এই যেমন, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে৷''

বলাবাহুল্য, ‘দ্য বব্স' এখন আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ ব্লগ পুরস্কার হিসেবে স্বীকৃত৷ এই মাধ্যমে গোটা বিশ্বে মত প্রকাশের অধিকার ও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতাকে আরও শক্তিশালী করতে চায় ডয়চে ভেলে৷ দু'বছর থেকে ডয়চে ভেলের এই সেরা ব্লগ প্রতিযোগিতায় যোগ করা হয়েছে বাংলা ভাষাকে৷ ২০১০ সালের আয়োজনে বিচারক ছিলেন ‘সামহয়্যার ইন'-এর প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দা গুলশান ফেরদৌস জানা৷ আর গত বছর, সেরা বাংলা ব্লগ প্রতিযোগিতায় বাংলা ভাষার বিচারক হন ‘গ্লোবাল ভয়েসেস অনলাইন'-এর রেজওয়ানুল ইসলাম৷

এবছর সেরা ব্লগ প্রতিযোগিতার ওয়েবসাইটটি আবারো সাজানো হচ্ছে নতুন করে৷ শুধু ইংরেজিতে নয়, সাইটটি পড়া যাবে বাংলাতেও৷ প্রতিযোগিতা শুরু হবে ১৩ই ফেব্রুয়ারি৷ যাতে বেস্ট ব্লগ, সোশ্যাল অ্যাক্টিভিজম, সামাজিক সচেতনতায় প্রযুক্তি, ভিডিও চ্যানেল, সীমানাবিহীন সাংবাদিক পুরস্কার ছাড়াও থাকবে একটি নতুন ‘ক্যাটেগরি' – শিক্ষা এবং সংস্কৃতি বিষয়ক ব্লগ৷

প্রতিবেদন: দেবারতি গুহ

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

স্কিপ নেক্সট সেকশন এই বিষয়ে আরো তথ্য

এই বিষয়ে আরো তথ্য

আরো সংবাদ দেখান
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

বিএনপি কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের একটি মুহূর্ত

সমাবেশের আগেই সংঘাত-প্রাণহানি, কী হবে ১০ ডিসেম্বর?

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান