ব্রিস্টলে বড় বাধা কি বৃষ্টি? | বিশ্ব | DW | 10.06.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ

ব্রিস্টলে বড় বাধা কি বৃষ্টি?

প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলেও পরপর দু'ম্যাচ হেরে এখন খানিকটা মনমরা টাইগাররা৷ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ব্রিস্টলে তাই জয় পেতে মরিয়া দল৷ তবে মঙ্গলবার তাদের আসল প্রতিপক্ষ হতে পারে বৃষ্টি!

কার্ডিফে ইংল্যান্ডের কাছে বড় ব্যবধানে হারার পর থেকে তীব্র সমালোচনার মুখে রয়েছেন মাশরাফিরা৷ টসে হারা বলতে গেলে যার অভ্যাস, সেই তিনি টসে জিতে ইংলিশদের বিপক্ষে নিয়েছিলেন ফিল্ডিং৷ আগের রাতে বৃষ্টি, দু'দিন ধরে ঢাকা পিচ, মেঘাচ্ছন্ন আবহাওয়া আর তীব্র বাতাস - সব মিলিয়ে মাঠের কন্ডিশন অনুযায়ী মাশরাফির সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল বলে মনে করেছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা৷ কিন্তু বাংলাদেশের বোলাররা সেই কন্ডিশন থেকে কোন সুবিধা নিতে পারেনি৷ বরং তাদের দুর্বল বোলিং আর ফিল্ডারদের ব্যর্থতায় রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড৷

সেই পাহাড় টপকানো সম্ভব হয়নি টাইগারদের৷ ম্যাচ শেষে তাই মাঠ ফেরত দর্শকদের অনেকেই বলে ফেললেন মাশরাফি টসে জিতে ব্যাটিং না নিয়ে ভুল করেছেন৷ তাদের যুক্তি, কার্ডিফের ছোট মাঠে বাংলাদেশ যদি আগে ব্যাট করতো, তাহলে অনায়াসে তিনশো রানের বেশি করতে পারতো৷ আর তখন ইংল্যান্ড চাপে পড়ে যেতো৷

‘‘যদি'' দিয়ে যদিও ক্রিকেট খেলা হয় না, তবুও এটা স্বীকার করতে হবে যে বাংলাদেশ দলের এই মুহূর্তে সবচেয়ে শক্তিশালী দিক হচ্ছে ব্যাটিং৷ দলে কয়েকজন প্রথমসারির অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান, অলরাউন্ডার রয়েছেন৷ ফলে যারা বলছেন এমন টিম আগে ব্যাটিং করলে ভালো হয়, সেটাও একেবারে ফেলনা যুক্তি নয়৷

কার্ডিফে টাইগারদের যে দিক নিয়ে সবচেয়ে বেশি সমালোচনা হয়েছে, তাহচ্ছে বোলিং৷ ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের কোন বোলারই ভালো প্রতিরোধ গড়তে পারেননি৷ বিশেষ করে একজন ভালো পেসারের অভাব অনুভূত হয়েছে বেশি৷ খেলার একেবারে শুরুতে সাকিব কিছু রান আটকাতে পারলেও স্পিনাররাও পুরো ম্যাচে তেমন একটা সুবিধা করতে পারেননি৷ বরং স্পিনার দিয়ে ম্যাচ শুরুর সমালোচনা করে ক্রিকইনফো তো লিখেই দিয়েছে, বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক এখনো সেকেলে ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করছেন৷ আর ইংল্যান্ড একজন বাড়তি পেসার নিয়ে নামলেও বাংলাদেশ কেন রুবেলকে নামায়নি সেটা নিয়েতো ফেসবুকে বিতর্কের শেষ নেই৷

এত সমালোচনার ধাক্কায় মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে নামা সম্ভাব্য দলে কিছুটা পরিবর্তনের আভাস এসেছে৷ লিটন দাসের বিশ্বকাপ অভিষেক হতে পারে ব্রিস্টলে৷ গতম্যাচে শূণ্য রানে আউট হওয়া মোহাম্মদ মিঠুনের বদলে তাঁকে মূল একাদশে নেয়া হতে পারে৷ পাশাপাশি একজন বাড়তি পেসার হিসেবে দলে জায়গা পেতে পারেন রুবেল হোসেনও৷ সেক্ষেত্রে সম্ভবত বাদ পড়বেন অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ৷

কার্ডিফে ক্রীড়া সাংবাদিক, ক্রিকেটবোদ্ধাদের সঙ্গে আলোচনায় একটা বিষয় পরিষ্কারভাবে উঠে এসেছে৷ বাংলাদেশ চলতি বিশ্বকাপে যেসব দলের বিপক্ষে জয়ের আশা নিয়ে ইংল্যান্ডে এসেছে, তার মধ্যে শ্রীলঙ্কা অন্যতম৷ বর্তমানে আইসিসি ব়্যাংকিংয়ে সেদলের অবস্থান টাইগারদের চেয়েও দুই ধাপ নীচে৷ গত তিন বছরে দুই দল একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাতবার মুখোমুখি হয়ে তিনটি করে ম্যাচ জিতেছে বাকিটা পরিত্যক্ত হয়েছে৷ টাইগারদের জন্য আরেকটি ‘সুখবর' হচ্ছে লংকানদের ‘জয়ের নায়ক' হিসেবে পরিচিত পেসার নুয়ান প্রদিপও ব্রিস্টলে মাঠে নামতে পারবেন না ইনজুরির কারণে৷

সবদিক বিবেচনা করলে শ্রীলঙ্কার চেয়ে তাই এই মুহূর্তে এগিয়েই রয়েছে টাইগাররা৷ তবে প্রকৃতি তাদের কতটা পাশে থাকবে সেটা নিয়ে দুশ্চিন্তা রয়ে গেছে৷ রবিবার দুপুরে বাংলাদেশ টিম যখন কার্ডিফ থেকে ব্রিস্টলে পৌঁছায় তখন অঝোর ধারায় বৃষ্টি পড়ছিল৷ বিকেলে সেই বৃষ্টি থেমে সূর্যের দেখা মেললেও আবহাওয়া পূর্বাভাষ বলছে সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল অবধি টানা বৃষ্টিপাত হতে পারে৷ খেলা চলার সময়ও বৃষ্টি হানা দেয়ার শঙ্কা রয়েছে৷     

ব্রিস্টলে এমন বৃষ্টির কারণে পণ্ড হয়েছে পাকিস্তান-শ্রীলঙ্কা ম্যাচ৷ টাইগাররা নিশ্চয়ই সেরকম কিছু চাইবে না৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন