ব্রিটেনের প্রিন্স চার্লস করোনা আক্রান্ত | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 25.03.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্য

ব্রিটেনের প্রিন্স চার্লস করোনা আক্রান্ত

করোনা ভাইরাস টেস্টে পজিটিভ হয়েছেন গ্রেট ব্রিটেনের যুবরাজ চার্লস৷ বতার কার্যালয়ের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন৷ ৭১ বছর বয়সি চার্লস স্কটল্যান্ডে একটি রাজকীয় বাসভবনে স্বেচ্ছায় কোয়রান্টিনে রয়েছেন বলেও জানানো হয়েছে৷

চার্লস করোনায় আক্রান্ত হলেও তার ৭১ বছর বয়সি স্ত্রী কামিলার শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি৷ যুবরাজের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, ‘‘যুবরাজের শরীরে মৃদু উপসর্গ দেখা দিলেও সার্বিকভাবে তিনি সুস্থ রয়েছেন৷ বাসা থেকেই তিনি তার স্বাভাবিক কাজকর্ম চালিয়ে যাবেন৷''

স্কটল্যান্ডে ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস যুবরাজের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি নিশ্চিতে এ পরীক্ষা করে৷ সংস্থাটি জানিয়েছে, যুবরাজের শরীরে কার সংস্পর্শে এ ভাইরাস এসেছে, তা নিশ্চিত করা সম্ভব নয়৷ গত কয়েক সপ্তাহে বেশ কিছু অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন চার্লস৷

বাকিংহাম প্যালেসের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, রানি এলিজাবেথ উইন্ডসরে তার বাসাতেই অবস্থান করছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘রানির স্বাস্থ্য ভালো রয়েছে৷ ১২ মার্চ যুবরাজের সঙ্গে সামান্য সময়ের জন্য দেখা হয়েছিল রানির৷ এখন তিনি বিশেষজ়্দের পরামর্শ মেনে চলছেন৷''

১২ মার্চই সবশেষ জনসমক্ষে আসেন যুবরাজ চার্লস৷ বেশ কয়েকটি ব্যক্তিগত বৈঠকে অংশ নেন তিনি৷ সেসব বৈঠকে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের চার্লসের শরীরে করোনার উপস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে তার কার্যালয়৷

এডিকে/এসিবি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন