ব্রাজিল হল্যান্ড ম্যাচকে ঘিরে ফুটছেন সমর্থকরা | খেলাধুলা | DW | 01.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ব্রাজিল হল্যান্ড ম্যাচকে ঘিরে ফুটছেন সমর্থকরা

ব্রাজিল হল্যান্ড কোয়ার্টার ফাইনাল নিয়ে উত্তেজনা টানটান৷ কেউ কাউকে ছেড়ে দিতে রাজি নয়৷ সহজে কী জিতবে ব্রাজিল? হল্যান্ড নাকি বিরক্তিকর ফুটবল খেলছে? আসলে জেতার জন্য বদ্ধপরিকর ডাচরা, বলেছেন রায়ান বাবেল৷

default

এই ব্রাজিলের মোকাবিলা করতে হবে হল্যান্ডকে

বিশ্বকাপ ফুটবলের টপ ফেভারিট দল ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনালে নামছে আগামীকাল শুক্রবার৷ তাদের মুখোমুখি হল্যান্ড৷ পোর্ট এলিজাবেথে নেলসন ম্যান্ডেলা বে স্টেডিয়ামে হবে এই খেলা৷ এই নিয়ে চারবারের মত বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে এই দুই হাই ভোল্টেজ দল একে অপরের মুখোমুখি৷ আর তাই এই ম্যাচকে সামনে রেখে জমজমাট এক লড়াইয়ের আশা করছে পুরো ফুটবল বিশ্ব৷ উত্তেজিত সমর্থকরা৷

১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র আসরে ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনালে ডাচদের ৩-২ গোলে পরাজিত করে শেষ পর্যন্ত শিরোপা জয় করেছিল৷ চার বছর পরে ফ্রান্সেও এই দুই দল একে অপরের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়৷ কিন্তু সেবার সেমিফাইনালে নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে ড্র থাকার পরে টাইব্রেকারে ডুঙ্গার দল ৪-২ গোলে জয় ছিনিয়ে নেয়৷ এই দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয় ১৯৭৪ সালে৷ দ্বিতীয় রাউন্ডের ঐ ম্যাচটিতে একমাত্র ইউরোপীয় দলটি ২-০ গোলে জয়ী হয়েছিল৷

Fußball WM 2010 Niederlande Japan

কমলারঙের নেদারল্যান্ডসের দাপটও কম নয়৷

কিন্তু হল্যান্ড কি বিরক্তিকর ফুটবল খেলছে? এই প্রশ্নকেই উড়িয়ে দিচ্ছেন ডাচ দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় রায়ান বাবেল৷ তিনি মনে করেন, বিশ্বকাপে জয় তুলে নেওয়া কার্যকর ফুটবলই খেলছে ডাচ দল৷ তবে তিনি মনে করেন, এবারের বিশ্বকাপে এখনো সেরা খেলাটি খেলেনি হল্যান্ড দল৷ ব্রাজিলের বিপক্ষেই নাকি হবে সেই খেলা৷

ব্রাজিলের কোচ দুঙ্গা কিন্তু ছোট করে দেখছেন না হল্যান্ড কে৷ তিনি বললেন, 'রবেন-পার্সি-স্নাইডার সমৃদ্ধ হল্যান্ড যথেষ্ট শক্তিশালী দল৷ ল্যাটিন আমেরিকান দেশগুলির মতো স্কিলফুল ও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে থাকে হল্যান্ড৷ এ বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে কোয়ার্টার-ফাইনালে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীতার মুখোমুখি আমাদের হতে হবে৷ ডাচ দলে এমন কয়েকজন ফুটবলার রয়েছে যারা ব্যক্তিগত দক্ষতায় ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে৷ তবে আমরাও তৈরি৷'

এদিকে, প্যারাগুয়ের বিপক্ষে উত্তেজনাকর ম্যাচে টাইব্রেকারে পরাজিত হয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেওয়া জাপানের বিশ্বকাপ স্কোয়াডের ভূয়শী প্রশংসা করেছেন জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নাওটো কান৷

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ব্লু সামুরাইদের অপ্রত্যাশিত পারফরম্যান্সের পর প্রধানমন্ত্রী পুরো দলকে অভিনন্দন জানান৷ তিনি বলেন, "একটি দল হিসেবে খেলে পুরো বিশ্বের সামনে জাপানি ফুটবলের শক্তিকে এই দলটা তুলে ধরেছে৷"

শেষ ১৬'র সমানে সমান লড়াইয়ে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে এশিয়ার শেষ ভরসা হিসেবে জাপান দারুণ এক সাহসিকতার পরিচয় দেয়৷ নির্ধারিত সময়ের খেলা গোলশূণ্য ড্র থাকার পর শেষ পর্যন্ত পেনাল্টিতে ৫-৩ গোলে পরাজিত হয়ে এবারের মত বিদায় নেয় চেরি ফুলের দেশ৷ ২০০২ সালের পরে এই প্রথম জাপান নক আউট পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছিল৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন