ব্যাংককে বিস্ফোরণ সত্ত্বেও দেবতার মূর্তি অক্ষত | বিশ্ব | DW | 18.08.2015
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্যাংককে বিস্ফোরণ সত্ত্বেও দেবতার মূর্তি অক্ষত

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে এক বিস্ফোরণকে ঘিরে রহস্য এখনো কাটেনি৷ তবে কর্তৃপক্ষ তদন্ত শুরু করেছে ইতিমধ্যেই৷ ওদিকে সোশ্যাল মিডিয়ার জগতে ঘটনাটি যথেষ্ট গুরুত্ব পাচ্ছে৷ টুইটারে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চলছে তুমুল আলোচনা৷

জনসংখ্যার সংখ্যাগুরু অংশই বৌদ্ধ, দেশের দক্ষিণে মুসলিম বিদ্রোহীদের তৎপরতা৷ এরই মধ্যে রাজধানীতে এক হিন্দু মন্দিরের কাছে হামলা৷ সামরিক শাসনের মাঝে এবার সন্ত্রাসবাদী তৎপরতার ফলে দেশের গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন শিল্প কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হবে, সে বিষয়ে দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছে৷ সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলিও বিষয়টি নিয়ে উত্তাল৷

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক ব্যাংককে হামলার নিন্দা করে টুইট করেছেন৷

‘টিফটি' নামের আড়ালে এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘‘আমরা কেন বার বার নিজেদের এমন ক্ষতি করি? বিশ্বে বড্ড বেশি ঘৃণা বিরাজ করছে৷ এই হিংসা বন্ধ করো৷''

ভারতের সংবাদ জগতের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব বীর সাংভি একটি ছবি শেয়ার করে মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, বিস্ফোরণ সত্ত্বেও মন্দিরের মধ্যে ব্রহ্মার মূর্তি অক্ষত রয়েছে৷

কেতন শেঠও মন্দিরটি সম্পর্কে কিছু তথ্য শেয়ার করেছেন৷

ভারতের বলিউড চলচ্চিত্র জগতের সঙ্গে ব্যাংককের নিবিড় যোগাযোগ রয়েছে৷ এমনকি বোমা বিস্ফোরণের সময়ে ঘটনাস্থলের কাছেই ছিলেন অভিনেতা-দম্পতি জেনেলিয়া ও রিতেশ দেশমুখ৷ তাঁরা টুইট করে জানিয়ে দেন যে, তাঁরা ভালো আছেন৷

অভিনেত্রী রবীনা ট্যান্ডন ও সোহা আলী খান টুইট করে এই বিস্ফোরণ সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন৷

পর্যটক হিসেবে অনেকেই ব্যাংক শহরের এই এলাকায় গিয়েছেন৷ তাঁদেরই একজন জেমস ও'কনেল নিজের অভিজ্ঞতার স্মৃচিতারণ করেছেন৷

সংকলন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন