বেলারুশে পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাবে রাশিয়া | রাজনীতি | DW | 26.06.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

রাশিয়া

বেলারুশে পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাবে রাশিয়া

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন আগামী মাসে প্রতিবেশী বেলারুশে ইস্কান্দার-এম ক্ষেপণাস্ত্র পাঠাতে চলেছেন৷ এই ক্ষেপণাস্ত্রের ‘প্রচলিত ও পারমাণবিক' ধরন তিনি সেদেশে হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন৷

ইস্কান্দার এমের পাল্লা ৫০০ কিলোমিটার অর্থাৎ ৩০০ মাইল পর্যন্ত হতে পারে৷

ইস্কান্দার এমের পাল্লা ৫০০ কিলোমিটার অর্থাৎ ৩০০ মাইল পর্যন্ত হতে পারে৷

পরমাণু হামলায় সক্ষম ইস্কান্দার-এম ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা বেলারুশে সরবরাহ করতে চায় রাশিয়া৷  প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন শনিবার এ কথা জানিয়েছেন৷ ‘‘আগামী মাসগুলোতে আমরা বেলারুশে ইস্কান্দার-এমের কৌশলগত ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা হস্তান্তর করব৷ এই ব্যবস্থা প্রচলিত এবং পরমাণুবাহী দুই ধরনের ব্যালিস্টিক বা ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে পারে''–সেন্ট পিটার্সবার্গে বেলারুশের কট্টরপন্থি শাসক আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর সঙ্গে বৈঠকে এ কথা জানান পুটিন৷ রুশ টেলিভিশনে একটি সম্প্রচারে এটি দেখা গিয়েছে৷

পুটিন জানান, অস্ত্র হস্তান্তরের বিশদ ব্যবস্থা ও রসদ নিয়ে দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা আলোচনা করবেন৷

এসইউ-২৫-কে পরমাণুবাহী করতে বেলারুশকে রাশিয়ার প্রস্তাব

এস-২৫ যাতে পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম হয়, তার জন্য বিমানগুলোর আধুনিকায়নে রাশিয়া সাহায্য করবে বলেও জানিয়েছেন পুটিন৷ বৈঠকের সময় এই নিয়ে লুকাশেঙ্কো রুশ প্রেসিডেন্টকে অনুরোধ করেন৷ পুটিন বলেন, ‘‘এই আধুনিকায়ন রাশিয়ার বিমান কারখানাগুলিতে করা উচিত এবং সেই অনুসারে কর্মীদের প্রশিক্ষণ শুরু করা উচিত৷''

যুদ্ধের মাঝেই দেশে ফিরছেন যে শরণার্থীরা

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনেজরুরি ভূমিকা রাখছে বেলারুশ৷ ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর রুশ সেনাবাহিনী বেলারুশ থেকেও দেশটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে৷

এদিকে, ইউক্রেন শনিবার জানিয়েছে যে দেশটির জাইতোমির এবং চেরনিহিভ শহরে বেলারুশ থেকে কয়েক ডজন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী৷

ইস্কান্দার-এম কী?

ইস্কান্দার-এম হলো মোবাইল গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা৷ এর কোড নাম ন্যাটো দিয়েছে ‘এসএস-২৬-স্টোন'৷ শীতল যুদ্ধের সময় সোভিয়েত ইউনিয়েনর ব্যবহৃত ‘স্কুড'-কে প্রতিস্থাপিত করেছে এটি৷

ইস্কান্দার এমের পাল্লা ৫০০ কিলোমিটার অর্থাৎ ৩০০ মাইল পর্যন্ত হতে পারে৷ এটি প্রচলিত বা পরমাণু হামলাকারী ডিভাইস (নিউক্লিয়ার ওয়ারহেড) বহনে সক্ষম৷ নিউক্লিয়ার ওয়ারহেডে পারমাণবিক প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে বিস্ফোরণ ঘটানো যায়৷ এটি বিধ্বংসী এবং মারণাস্ত্র৷

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরু করার পর থেকে পুটিন বেশ কয়েকবার পারমাণবিক অস্ত্রের কথা উল্লেখ করেছেন৷ পশ্চিমাদের হস্তক্ষেপ না করার জন্য সতর্কতা হিসাবে বোঝাতে চেয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট৷

লুকাশেঙ্কো গত মাসে বলেছিলেন, রাশিয়া থেকে ইস্কান্দার ক্ষেপণাস্ত্র (পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম) এবং এস-৪০০ বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনেছে বেলারুশ৷

আরকেসি এআই (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)