বুন্ডেসলিগায় খেলা থামিয়ে ইফতার | বিশ্ব | DW | 17.04.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

খেলা

বুন্ডেসলিগায় খেলা থামিয়ে ইফতার

সম্প্রতি জার্মানির বুন্ডেসলিগার এক ম্যাচ চলার সময় মুসলমান এক ফুটবলারের রোজা ভাঙার সুবিধার্থে কিছুক্ষণের জন্য খেলা বন্ধ রাখা হয় - যা আগে কখনও হয়নি৷

২৬ বছর বয়সি সেন্টার-ব্যাক মুসা ফ্রান্সের নাগরিক

২৬ বছর বয়সি সেন্টার-ব্যাক মুসা ফ্রান্সের নাগরিক

৬ এপ্রিল মাইনৎস ও আউগসবুর্গের মধ্যে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে ৬৪ মিনিটের সময় কিছুক্ষণের জন্য খেলা বন্ধ রাখেন রেফারি মাটিয়াস ইওলেনবেক৷ ঐ সময় পানি খেয়ে রোজা ভাঙেন মাইনৎসের ফুটবলার মুসা নিয়াকাতে৷

বুন্ডেসলিগার ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম বলে জানিয়েছে জার্মানির বহুল প্রচারিত ‘বিল্ড' পত্রিকা৷

২৬ বছর বয়সি সেন্টার-ব্যাক মুসা ফ্রান্সের নাগরিক৷ বিল্ডকে তিনি বলেন, তিনি জানতেন ৬২ মিনিটের সময় রোজা ভাঙার সময় হবে৷ তাই দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর আগে তিনি রেফারিকে ৬২ থেকে ৭০ মিনিটের মধ্যে কোনো একসময় তাকে রোজা ভাঙার সুযোগ দেয়ার অনুরোধ করেছিলেন৷

এরপর ১০ এপ্রিল লাইপজিগ ও হফেনহাইমের খেলার সময় লাইপজিগের মোহামেদ সিমাকানকেও একই সুযোগ দেয়া হয়৷

গতবছর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে লেস্টার ও ক্রিস্টাল প্যালেসের ম্যাচ চলার সময় লেস্টারের ডিফেন্ডার ওয়েসলে ফোফানা ও ক্রিস্টাল প্যালেসের মিডফিল্ডার শেকু কুইয়াতেকে রোজা ভাঙার সুযোগ দেয়া হয়েছিল৷

জেডএইচ/কেএম (বিল্ড, ডেইলি মেল)