1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
রাজনীতিইসরায়েল

বিরোধীদের সঙ্গে সংলাপের কথা বললেন নেতানিয়াহু

২৪ মার্চ ২০২৩

ইসরায়েলে বিচার বিভাগের ‘সংস্কার’-কে কেন্দ্র করে প্রতিবাদ-বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বিরোধীদের সঙ্গে সংলাপের মাধ্যমে বিভাজন দূর করার অঙ্গীকার করেছেন৷ বিরোধীরা গোটা প্রক্রিয়া মুলতুবি রাখার দাবি জানাচ্ছে৷

https://p.dw.com/p/4P9v3
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু৷
ইসরায়েলে বিচার বিভাগের ‘সংস্কার’-কে কেন্দ্র করে বিক্ষোভের মুখে নেতানিয়াহু বিভাজন দূর করার অঙ্গীকার করেছেন৷ছবি: Abir Sultan/AP Photo/picture alliance

ইসরায়েলের সরকার বিচার বিভাগের ‘সংস্কার’-এর নামে গণতান্ত্রিক কাঠামো দুর্বল করার চেষ্টা করছে, এমন অভিযোগে গোটা দেশে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ আরো তীব্র হচ্ছে৷ তাদের দাবি, বাস্তবে রাজনীতিকদের হাতে আদালতের তুলনায় বেশি ক্ষমতা তুলে দিতে নেতানিয়াহু এমন বিতর্কিত পদক্ষেপ নিচ্ছেন৷ কারণ প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর মন্ত্রিসভার একাধিক সদস্য তদন্ত ও শাস্তি এড়াতে এমন হাতিয়ার দিয়ে আত্মরক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছেন৷ উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবারই সংসদে বিতর্কিত একটি আইন অনুমোদিত হয়েছে, যার আওতায় কোনো প্রধানমন্ত্রীকে পদের অযোগ্য ঘোষণা করতে শর্তগুলি আরও কঠিন করা হয়েছে৷ বিরোধী পক্ষের শীর্ষ নেতা ইয়াইর লাপিদ সেই পদক্ষেপকে নেতানিয়াহুকে রক্ষার ‘ব্যক্তিগত আইন' হিসেবে বর্ণনা করেছেন৷ তিনি নেতানিয়াহুর লিকুদ দলের মধ্যে ‘দায়িত্বশীল' ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে গণতন্ত্র রক্ষার জন্য এগিয়ে আসার আহ্বান জানান৷

তেল আভিভ শহরের বাইরে বিক্ষোভকারীরা হাইওয়ে অবরোধ করায় পুলিশ জলকামান ব্যবহার করে তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করেছে৷ ইসরায়েলের অন্যান্য শহরেও হাজার হাজার মানুষ পথে নেমে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন৷ অনেকে দেশে স্বৈরতন্ত্রের আশঙ্কা প্রকাশ করেন৷ জেরুসালেমে নেতানিয়াহুর বাসভবনের সামনেও প্রতিবাদ দেখা গেছে৷

দেশে-বিদেশে প্রবল চাপের মুখে পড়ে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু আপোশের ইঙ্গিত দিয়েছেন৷ জাতির উদ্দেশ্যে টেলিভিশন ভাষণে তিনি সংস্কারের পদক্ষেপ চালিয়ে যাবার অঙ্গীকার করলেও সেই প্রস্তাবের সমর্থক ও বিরোধীদের জন্য গ্রহণযোগ্য সমাধানসূত্রে পৌঁছানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন৷ তাঁর মতে, সংস্কারের বিরোধীরা মোটেই দেশদ্রোহী, পক্ষপাতদুষ্ট বা ফ্যাসিস্ট নয়৷ জনগণের মধ্যে শান্তি ফেরাতে ও বিভাজন মেটাতে নেতানিয়াহু সব রকম পদক্ষেপ নেবার আশ্বাস দেন৷

ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট, সেনাবাহিনী থেকে শুরু করে প্রশাসন যন্ত্রের মধ্যেও নেতানিয়াহু সরকারের বিতর্কিত পদক্ষেপের বিরুদ্ধে অসন্তোষ বাড়ছে৷ গত সপ্তাহে প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হ্যারৎসগ আপোশ প্রস্তাব পেশ করলেও সরকার সেটি অগ্রাহ্য করেছে৷ এবার খোদ প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইওয়াভ গালান্ট বিরোধীদের সঙ্গে সংলাপের স্বার্থে আইনি প্রক্রিয়া মুলতুবি রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন৷ বিশেষ করে রিজার্ভ বাহিনীর সদস্যরা এই সরকারের নির্দেশ অমান্য করার হুমকি দেওয়ায় ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা নিয়ে দুশ্চিন্তা প্রকাশ করছেন তিনি৷  নেতানিয়াহু তাঁকে তলব করায় তিনি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ বাতিল করেন৷ তারপর প্রধানমন্ত্রী নিজেই টেলিভিশনে ভাষণ দেন৷

ইসরায়েলের বিরোধী নেতারা তথাকথিত সংস্কারের পদক্ষেপ নিয়ে জোট সরকারের সঙ্গে দরকষাকষির সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন৷ তাঁরা গোটা প্রক্রিয়া মুলতুবি রাখার দাবি জানিয়েছেন৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইসরায়েলের বর্তমান অস্থিরতা মেটাতে আপোশের প্রস্তাবের পক্ষে সমর্থন জানিয়েছেন৷ রোববার নেতানিয়াহুর সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলার সময় তিনি গণতন্ত্রের সব শাখার উপর প্রকৃত ‘চেক্স অ্যান্ড ব্যালেন্সেস'-এর গুরুত্ব তুলে ধরেন৷ জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎসও নেতানিয়াহুর উদ্দেশ্যে ইসরায়েলের প্রেসিডেন্টের আপোশ প্রস্তাব বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছেন৷

এসবি/এসিবি (রয়টার্স, এএফপি)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

কিয়েভে রাশিয়ার আক্রমণ
স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান