বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য টিউশন ফি চালুর প্রস্তাব | বিশ্ব | DW | 22.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য টিউশন ফি চালুর প্রস্তাব

জার্মানির সবচেয়ে জনাকীর্ণ রাজ্য নর্থ রাইন ওয়েস্টফেলিয়ায় ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাইরের সব দেশের শিক্ষার্থীদের জন্য টিউশন ফি চালুর প্রস্তাব করা হয়েছে৷ তবে সমালোচকরা বলছেন, এর ফলে রাজ্যটিতে বিদেশি শিক্ষার্থী কমে যেতে পারে৷

ইমকে আলেন বিষয়টি এখনো বিশ্বাস করতে পারছেন না৷ বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গ রাজ্যে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য টিউশন ফি চালুর পর ‘বিপর্যয়' ঘটেছে বলে মনে করেন তিনি৷ আর সেই বিপর্যয় দেখার পরও নর্থ রাইন ওয়েস্টফেলিয়া বা এনআরডাব্লিউ রাজ্য কেন এই ফি চালু করতে চাচ্ছে, তা কোলন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংগঠন আসতা'র নির্বাহী কমিটির প্রধান ইমকে আলেনের বোধগম্য হচ্ছে না৷

আলেন কোনোরকম রাখঢাক না রেখেই প্রস্তাবটির সমালোচনা করে বলেছেন, ‘‘এই নির্বুদ্ধিতার অবসান হওয়া উচিত৷''

আলেন যে প্রস্তাবকে ‘নির্বুদ্ধিতা' মনে করছেন, সেই প্রস্তাবটি করেছেন ইসাবেল ফাইফার-পয়েন্সগেন৷ এনআরডাব্লিউ রাজ্যের বিজ্ঞানমন্ত্রী তিনি৷ তাঁর এই প্রস্তাব শুরুতে অনেককেই বিস্মিত করে৷ রাজ্য সরকারের জোট, অর্থাৎ রক্ষণশীল খ্রিষ্টীয় গণতন্ত্রী এবং উদারপন্থি মুক্ত গণতন্ত্রীদের মধ্যে যে চুক্তি হয়েছে, তাতে সামগ্রিকভাবে টিউশন ফি তুলে দেয়ার কথা উল্লেখ রয়েছে৷

ভাষা শিখছেন অভিবাসীরা

জার্মান ভাষা শিখছেন অভিবাসী শিক্ষার্থীরা

তবে ফাইফার-পয়েন্সগেন মনে করেন, ‘‘ইইউভুক্ত নয় এমন সব দেশের শিক্ষার্থীরাজার্মানির অবকাঠামো ব্যবহার করছে এবং ভালো শিক্ষা পাচ্ছে৷ তাই তাদের এ খাতে যে ব্যয় হচ্ছে তাতে অবদান রাখা উচিত৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বাড়তি আয়

আলেন এবং রাজ্যমন্ত্রী উভয়েই বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গ রাজ্যে টিউশন ফি চালুর পরের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন৷ চলতি বছরের শুরুতে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য এই ফি চালু করে রাজ্যটি৷ সেখানে এখন একজন আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীকে প্রতিবছর তিন হাজার ইউরো প্রদান করতে হয়৷ এনআরডাব্লিউও যদি একই ফি চালু করে, তাহলে রাজ্যের ভাণ্ডারে বড় অংকের অর্থ জমা হবে৷ টাকার হিসেবে যা বছরে দু'শ' মিলিয়ন ইউরোর বেশি৷ জার্মানির সবচেয়ে জনাকীর্ণ রাজ্যটির ৭৪০,১৫৪ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬৭,৬০৯ জন ইইউভুক্ত দেশের নয়৷ তাদের অধিকাংশই এসেছেন তুরস্ক (১৪,১০৪ জন), চীন (৮,৪৮৩) এবং ভারত (৩,৯৫৭) থেকে৷

তবে বাস্তবতা ভিন্ন

আলেন সবাইকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন যে, টিউশন ফি চালু হলে এনআরডাব্লিউ রাজ্যে বিদেশি শিক্ষার্থীদের সংখ্যা খুব দ্রুত কমে যেতে পারে৷ অন্তত বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গে সেরকমই ঘটেছে৷ রাজ্যটির সাতটি জনপ্রিয় ইন্সটিউটের এক তৃতীয়াংশ বিদেশি শিক্ষার্থী ইতোমধ্যে কমে গেছে বলে জানান তিনি৷

এনআরডাব্লিউ-র বিজ্ঞানমন্ত্রীও বিষয়টি বোঝেন৷ তিনি জানিয়েছেন, বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গের পরিস্থিতি মূল্যায়নের পর তিনি হয়ত তাঁর প্রস্তাবে কিছুটা পরিবর্তন আনতে পারেন৷ আর সেক্ষেত্রে গরিব দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি দেয়া থেকে বিরত রাখা হতে পারে৷

উল্লেখ্য, বাডেন-ভুর্টেমব্যার্গে টিউশন ফি-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হয়েছে৷ রাজ্যটির চারটি প্রশাসনিক জেলায় এর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন শিক্ষার্থীরা৷

ডানিয়েল হাইনরিশ/এআই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন