বিতর্কে বদলাচ্ছে জার্সির রঙ | বিশ্ব | DW | 30.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বিতর্কে বদলাচ্ছে জার্সির রঙ

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচনের একদিন আগেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছিল৷ ব্যাপক সমালোচনার মুখে সেই জার্সিতে আসছে পরিবর্তন৷

সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচনের পর সেই সমালোচনা বেড়েছে কয়েকগুন৷ অনেকে তো জার্সির অনুমোদনকারীদের শাস্তিরও দাবি করেছেন৷ শেষ পর্যন্ত মানুষের আবেগের সামনে পিছু হটেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, বিসিবি৷ জার্সির নকশা আর রঙ বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা৷ সেই সিদ্ধান্তে প্রাথমিকভাবে সম্মতিও দিয়েছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি৷ 

বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘‘দু'টি জার্সির মধ্যে কেবল সবুজ জার্সিটিতে পরিবর্তন আনা হবে৷ ইতিমধ্যে আইসিসি আমাদের অনুমোদনও দিয়েছে৷ এই জার্সির নকশায় কিছুটা পরিবর্তন এনে লাল রঙ কোথাও দিয়ে দেওয়া হবে৷ সম্ভব হলে বাজারে চলে যাওয়া সবুজ রঙের জার্সিগুলো আমরা উঠিয়ে নেবো৷''

অডিও শুনুন 03:49

জার্সিটা শুধু জার্সি না, এটা বাংলাদেশের মানুষের আবেগও: মোস্তাফা মামুন

বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও মঙ্গলবার বিকেলে সাংবাদিকদের ডেকে বলেছেন, ‘‘আমরা আইসিসি থেকে অনুমোদন পেয়েছি৷ নকশা ও রঙে পরিবর্তন আনা হবে৷'' তবে যে ধরনের সমালোচনা হচ্ছে, তার প্রতিক্রিয়ায় বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘‘এই ধরনের সমালোচনা হওয়া উচিত না৷ এখন আমাদের জার্সির রঙ সবুজ৷ এই রঙে তো অনেক দেশের জার্সি আছে৷ বুকের উপরই বিসিবির লোগো আছে৷ এটা দেখে যদি কেউ বাংলাদেশের জার্সি না চিনে পাকিস্তান মনে করেন, তাহলে তার পাকিস্তানে চলে যাওয়াই ভালো৷ এখন অষ্ট্রেলিয়া হলুদ জার্সি পরে, তাই বলে কি কেউ হলুদ জার্সি পরবে না? যাক, আমরা জার্সিতে পরিবর্তন আনছি৷'' 

অডিও শুনুন 03:43

দু'টি জার্সির মধ্যে কেবল সবুজ জার্সিটিতে পরিবর্তন আনা হবে: নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন

ডয়চে ভেলের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘‘এখানে কয়েকভাবে জার্সির অনুমোদন হয়৷ প্রথমত, অনেক সময় টেন্ডার আহ্বান করা হয়৷ অনেকে জার্সির ডিজাইন জমা দেন৷ সেখানে থেকে এ সংশ্লিষ্ট কমিটি একটা বা দু'টি জার্সি সিলেক্ট করেন৷ এবার যেটা হয়েছে, মোট ২০টি নকশা তৈরি করে তা অনুমোদনের জন্য বোর্ডে জমা দিয়েছিল, যাদের কাছ থেকে আমরা জার্সি নিই, তারা৷ সেখান থেকেই দুই রঙের জার্সি চূড়ান্ত করে বিসিবি৷ প্রাথমিক নকশায় সবুজ জার্সিতে ‘বাংলাদেশ' ও ক্রিকেটারদের জার্সি নম্বর লেখা ছিল লাল রঙে৷ কিন্তু আইসিসির নির্দেশনায় সেটি শেষ পর্যন্ত সাদা করতে বাধ্য হয় বিসিবি৷ অন্য কোথাও যেহেতু আর লাল নেই, তাই শুধু সবুজ হয়ে গেছে৷ অনেক সময় আমাদের স্পন্সরের উপরও নির্ভর করে জার্সির ডিজাইন৷ তবে সবশেষে আইসিসি থেকে অনুমোদন করিয়ে নিতে হয়৷ এবার বিতর্ক শুরুর পর আমরা আইসিসির সঙ্গে যোগাযোগ করেছি, আমরা ‘বাংলাদেশ' লেখাতেই লাল দিতে চাই৷ না হলে অন্য কোথাও লালের মিশ্রণ থাকবে সবুজের সঙ্গে৷ সেটা আইসিসি অনুমোদনও দিয়েছে৷ দু-একদিনের মধ্যে এটা চূড়ান্ত হয়ে যাবে৷''

এবার বিশ্বকাপে মাশরাফিদের জন্য দু'টি জার্সি নির্বাচন করা হয়েছে৷ হোম জার্সির পুরোটাই সবুজ, তাতে লাল রঙের মিশ্রণ নেই৷ অ্যাওয়ে জার্সি আবার পুরোটাই লাল রঙের৷ তবে দুই বাহুতে সবুজের ছোঁয়া রয়েছে৷ সামনে বাংলাদেশ লেখার ফন্টেও রয়েছে সবুজ রঙ৷ মঙ্গলবার সবুজ রঙের জার্সি পরেই অফিসিয়াল ফটোসেশনে অংশ নেন ক্রিকেটাররা৷ এরপর থেকেই সামাজিক মাধ্যমে তুমুল আলোচনার সূত্রপাত৷ ক্রিকেটপ্রেমীদের অভিযোগ, জার্সি দু'টি আয়ারল্যান্ড, পাকিস্তান কিংবা আফ্রিকার জার্সির মতো লাগছে৷ এতে লাল-সবুজের মিশ্রণ নেই৷

 বিসিবি কি অযথাই বিতর্ক তৈরি করেছে? এই বিতর্ক কি এড়ানো যেতো না? জানতে চাইলে ক্রীড়া সাংবাদিক মোস্তাফা মামুন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘অবশ্যই যেতো৷ তাদের যে মনোযোগ ছিল না, এই জার্সিই তার প্রমান৷ এখানে বাংলাদেশ দলের জার্সিটা শুধু জার্সি না, এটা বাংলাদেশের মানুষের আবেগও৷ যাঁরা জার্সিটা চূড়ান্ত করেছেন, তাঁরা ইচ্ছে করে এটা করেছেন, আমি সেটা বলব না, তাঁদের যে মনোযোগের ঘাটতি ছিল, সেটা তো বোঝাই যাচ্ছে৷ এর আগেও কিন্তু এই বোর্ড থেকে অনেক সুন্দর জার্সি এসেছে৷ এটা কিন্তু সত্যি৷ তবে এটা নিয়ে যে রি-অ্যাকশন হয়েছে সেক্ষেত্রেও কিন্তু আমাদের সচেতন থাকতে হবে৷ এই ধরনের বিতর্ক আমাদের প্লেয়ারদের একটা বাড়তি চাপে ফেলতে পারে৷ পাশাপাশি ক্রিকেট বিশ্বেও খারাপ বার্তা যেতে পারে যে, আমাদের বোর্ড এসব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কতটা অমনোযোগী৷ আমি পরামর্শ দেবো, ভবিষ্যতে যেন এই ধরনের বিতর্ক আর না তৈরি হয় সে বিষয়ে সচেতন থাকবে হবে৷''

জার্সির ডিজাইন করেছেন মেহতাব উদ্দিন সেন্টু৷ তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘‘আইসিসির নির্দেশনায় সবুজ জার্সি থেকে লাল অংশ বাদ দিতে হয়েছে৷ জার্সির ডিজাইনে পুরোটা সবুজ আর বুকে ‘বাংলাদেশ' লেখাটা ছিল লাল৷ আইসিসিতে পাঠানোর পরে, আইসিসি এটাকে সাদা করতে বলেছে৷ কেন বলেছে এটা আমরা বলতে পারবো না৷ আমরা ইন্সট্রাকশন পাই বোর্ড থেকে, সেই অনুযায়ী সাদা করতে বলার পর আমরা সাদা করেছি৷''

জার্সি উন্মোচনের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তুমুল সমালোচনা চলছে৷ অনেকে লিখেছেন, ‘‘হঠাৎ করে দেখলে মনে হয় আয়ারল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দল, আবার অনেক সময় সাউথ আফ্রিকা, অনেক সময় পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল বলে মনে হয়!'' আরেকজন লিখেছেন, ‘‘এই সবুজ আমাদের না৷ এটা কি বাংলার সবুজ? সবুজের মাঝে লাল কোথায়! আমাদের পতাকার রঙ নেই, আমার দেশের ঘ্রাণ নেই৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন