বিতর্কিত কার্টুন আবার ছাপছে শার্লি এব্দো | বিশ্ব | DW | 02.09.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

বিতর্কিত কার্টুন আবার ছাপছে শার্লি এব্দো

হজরত মোহাম্মদ (সা.)এর বিতর্কিত কার্টুন বুধবার রিপ্রিন্ট করছে ফরাসি পত্রিকা শার্লি এব্দো। যা নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন বিতর্ক।

বুধবার ফের একবার হজরত মোহাম্মদ (সা.)এর বিতর্কিত কার্টুন রিপ্রিন্ট করতে চলেছে ফ্রান্সের পত্রিকা শার্লি এব্দো। এ দিনই ফরাসি আদালতে ২০১৫ সালে শার্লি এব্দোর দফতরে হামলার শুনানি শুরু হচ্ছে। দিনটিকে মনে রেখেই দ্বিতীয়বার বিতর্কিত কার্টুন প্রকাশের পরিকল্পনা করেছে পত্রিকাটি। এ বিষয়ে ফরাসি প্রেসিডেন্ট কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

২০১৫ সালে হজরত মোহাম্মদ (সা.)এর বিতর্কিত কার্টুন প্রকাশ করেছিল ফরাসি পত্রিকা শার্লি এব্দো। যা নিয়ে শুধু ফ্রান্সে নয়, গোটা বিশ্বেই বিতর্ক হয়েছিল। এর কিছু দিনের মধ্যেই প্যারিসে পত্রিকার অফিসে বন্দুকধারীর হামলা হয়। ঘটনাস্থলেই ১২ জনের মৃত্যু হয়। যার মধ্যে ফ্রান্সের বিখ্যাত কার্টুনিস্টরা ছিলেন। পত্রিকা অফিসে গুলি চালানোর পর বারান্দা থেকে বন্দুকধারী বলেছিলেন, মহা নবিকে অপমান করার প্রতিশোধ নেয়া হলো।

শার্লি এব্দো দফতরে হামলা গোটা বিশ্বকে স্তম্ভিত করে দিয়েছিল। বস্তুত ওই ঘটনার পরে কার্যত দুই ভাগে ভেঙে গিয়েছিল জনমত। একপক্ষ শার্লি এব্দোর কার্টুনের বিরোধিতা করেছিল। অন্যপক্ষের বক্তব্য, গণতন্ত্রে ওই ধরনের কার্টুন প্রকাশের অধিকার তাদের আছে। পত্রিকা অফিসে গুলি চালানোর অবশ্য বিরোধিতা করেছিলেন অধিকাংশ মানুষই।

ঘটনায় ১২ জন পুরুষ এবং একজন নারীকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। যাঁরা সকলেই বন্দুকধারীদের সাহায্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। বুধবার ওই অভিযোগের ভিত্তিতে শুনানি শুরু হবে ফরাসি আদালতে। বস্তুত, শুনানি শুরুর দিনটিকেই নথিভুক্ত করতে রাখতে চাইছে শার্লি এব্দো। সম্প্রতি তাদের সম্পাদক লিখেছেন, '২০০৫ সালে ডেনমার্কের একটি পত্রিকায় প্রথম ওই কার্টুন ছাপা হয়েছিল। শার্লি এব্দো পরবর্তীকালে তা রিপ্রিন্ট করে। তারপরেই হামলার ঘটনা ঘটে। এর পর বহু সময়ে বহু মানুষ ওই কার্টুন আবার প্রকাশ করার অনুরোধ করেছিলেন। কিন্তু আমরা রাজি হয়নি। একটি বিশেষ দিনের অপেক্ষায় ছিলাম আমরা। বুধবার শার্লি এব্দোর দফতরে গুলি চালানোর শুনানি শুরু হচ্ছে। সে জন্যই এই দিনটিকে ওই কার্টুন রিপ্রিন্টের দিন হিসেবে বেছে নেওয়া হচ্ছে।'

প্রশ্ন হলো, বিতর্কিত ওই কার্টুন ফের প্রকাশ করা কি আদৌ যুক্তিযুক্ত? নতুন করে এ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। কারও মতে নতুন করে বিতর্ক উস্কে না দিলেই ভালো হতো। তবে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রোঁ এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাননি। তিনি বলেছেন, এমন কিছু করা উচিত নয়, যা অন্যের ভাবাবেগে আঘাত দেবে। কিন্তু শার্লি এব্দোর কার্টুন নিয়ে মন্তব্য করা উচিত হবে না। গণতান্ত্রিক দেশে সকলের মত প্রকাশের অধিকার আছে। গণতন্ত্রকে সম্মান করাই সব চেয়ে বড় বিষয়।

বস্তুত, মাক্রোঁর মতকে সমর্থন করছেন অনেকেই। তাঁদের বক্তব্য, পত্রিকাটির মত প্রকাশের অধিকারে হস্তক্ষেপ করা অনুচিত। কিন্তু নতুন করে বিতর্কিত কার্টুনটি প্রকাশ করলে যে ফের উত্তেজনা তৈরি হতে পারে, সে আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স, ডিপিএ)

বিজ্ঞাপন