বিজ্ঞানমুখী শিক্ষা ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই | পাঠক ভাবনা | DW | 19.06.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাঠক ভাবনা

বিজ্ঞানমুখী শিক্ষা ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই

বাংলাদেশের কওমি শিক্ষাপদ্ধতি নিয়ে অনেক পাঠক তাদের পছন্দ-অপছন্দ আর  ভাবনার কথা জানিয়েছেন ডয়চে ভেলে বাংলার ফেসবুক পাতায়৷

জুনায়েদ হাসান বাংলাদেশের কওমি শিক্ষাপদ্ধতির প্রশংসা করে লিখেছেন, ‘‘এ শিক্ষা ব্যবস্হায় শিক্ষকদেরকে অপদস্থ করা হয় না৷ হয় না প্রশ্নফাসের মত জাতীর মারণব্যাধি৷ তারা ঝরে পড়া লাখো শিশুদেরকে করে তোলে শিক্ষিত৷ আর তা নিশ্চয় প্রশংসার দাবীদার৷''

পাঠক আহাদুল ইসলাম টিপুও  কওমি শিক্ষাপদ্ধতিকে ভালোই বলছেন৷ পাঠক আবু মোহাম্মদও তাই মনে করেন৷

ডয়চে ভেলের পাঠক ওসমান রেদওয়ানের মতে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে এক শিক্ষানীতি মেনে চলতে হবে৷ প্রয়োজনে পাশাপাশি প্রশ্নপত্র ফাস ও কোচিং ব্যবসা ঠেকানো উচিৎ৷

তবে ভিন্নমত পাঠক সাইফুল ইসলাম সোহাগের৷ তিনি লিখেছেন, ছাত্র ছাত্রীদের শাসন ব্যবস্থা খুবই ন্যাক্কারজনক৷এরা মনে করে শুধু মেরেই শিক্ষা দেয়া যায়৷ এদের শিক্ষায় গোড়ামি এবং মধ্য যুগীয় নিয়ম কানুন আছে ৷

আর পাঠক রাসেল বিন রাফির মতে  বিজ্ঞানমুখী শিক্ষা ব্যবস্থার কোনো বিকল্প নেই৷

এদিকে পাঠক অভিশেখ মুখোপাধ্যায় বিশ্বাস করেন  ধর্ম আর শিক্ষা আলাদা করার প্রয়োজন আছে৷

আর তৌফিকুল ইসলামের ধারণা কওমি  শিক্ষা ব্যবস্থায় নানা রকম গোড়ামি আছে৷

তবে পুরোপুরি ভিন্নমত ডয়চে ভেলের ফেসবুক বন্ধু মৃদুল রনির৷ তিনি মনে করেন পৃ‌থিবীর সেরা শিক্ষা ব্যবস্থা কওমি৷ কওমি শিক্ষাপদ্ধতি নাকি স‌ত্যিকারের মানুষ বানা‌নোর শিক্ষা৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: খালেদ মুহিউদ্দীন

      

নির্বাচিত প্রতিবেদন