বাস-ট্রেনে চড়ে জার্মানিতে আসছেন অবৈধ অভিবাসীরা | বিশ্ব | DW | 28.01.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

বাস-ট্রেনে চড়ে জার্মানিতে আসছেন অবৈধ অভিবাসীরা

২০১৮ সালে জার্মানির ফেডারেল পুলিশ বাস ও ট্রেনে চড়ে অবৈধভাবে দেশটিতে প্রবেশের পর ১৪ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটক করেছে৷ তাঁদের অধিকাংশই পার্শ্ববর্তী দেশ অস্ট্রিয়া থেকে জার্মানিতে আসেন৷

সোমবার আঞ্চলিক পত্রিকা রাইনিশে পোস্ট এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে৷ সেখানে ফেডারেল পুলিশের একটি নথির বরাত দিয়ে বলা হয়, উল্লেখিত সময়ে ৮ হাজারের কিছু কম অবৈধ অভিবাসী বাসে করে জার্মানিতে প্রবেশ করেন৷ আর ৬ হাজারের কিছু বেশি মানুষ প্রবেশ করেন ট্রেনে করে৷

এসব অবৈধ অভিবাসীর অধিকাংশই আফগানিস্তান, নাইজেরিয়া, ইরাক, সিরিয়া ও তুরস্কের নাগরিক৷

অস্ট্রিয়া থেকে এসেছেন সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ৷শুধু এই দেশটি থেকেই এসেছেন প্রায় ৬ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাসী৷ ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের সীমান্ত দিয়েও এসেছেন অনেক শরণার্থী৷ 

ফেডারেল পুলিশ শুধু অস্ট্রিয়া-জার্মানি সীমান্ত দিয়ে আসা শরণার্থীদেরই ফিরিয়ে দিয়েছে৷

এদিকে জার্মানি শেনজেন অঞ্চলের সদস্য হওয়ায় এখানকার বাস কোম্পানিগুলো যাত্রীদের পাসপোর্ট বা পরিচয়পত্র পরীক্ষা করতে পারবে না– ইউরোপীয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস (ইসিজে) গত ডিসেম্বরে এমন রুল জারি করে৷ এতে করে অবৈধ অভিবাসী চিহ্নিত করা কঠিন হয়ে পড়েছে৷

জার্মানি ও স্পেনের দু'টি বাস কোম্পানি সীমান্ত পার হবার সময় পাসপোর্ট ও রেসিডেন্স পারমিট পরীক্ষার জার্মান নিয়মের বিরুদ্ধে ইসিজে-তে নালিশ জানালে আদালত এই রুল জারি করে৷

এই রুলটি এখন জার্মানির ফেডারেল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কোর্টে রিভিউ করা হবে৷

আলেক্সান্ডার পিয়ারসন/জেডএ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন