বালুর তৈরির শিল্পকর্মে মুগ্ধ সবাই | অন্বেষণ | DW | 20.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

বালুর তৈরির শিল্পকর্মে মুগ্ধ সবাই

বালুর তৈরি শিল্পকর্ম দেখেছেন কখনো? গ্রান ক্যানারিয়াতে যিশুর জন্মের কাহিনী বালুর তৈরি ভাস্কর্যের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছেন একদল শিল্পী৷ চলুন সেগুলো দেখে আসি৷

বড়দিনের গল্পের এক ব্যতিক্রমী উপস্থাপনা: গ্রান ক্যানারিয়ায় জড়ো হওয়া শিল্পীরা বড়দিনের নানা ঘটনা ফুটিয়ে তুলেছেন বালু দিয়ে তৈরি ভাস্কর্যের মাধ্যমে৷ বালুশিল্পী সানিটা রাভিনার ভাষায়, ‘‘এটা হচ্ছে যিশুর জন্মের সময়কার কাহিনীর ভিত্তিতে তৈরি আমার শিল্পকর্ম যেখানে দেখা যাচ্ছে শিশু যিশু মারিয়ার কোলে রয়েছেন এবং যোশেফ পাশে দাঁড়িয়ে রয়েছেন৷ তাদেরকে শান্তিপূর্ণ, সুখি হিসেবে উপস্থাপন আমার কাছে জরুরী ছিল৷ অন্যথায় ছবিটা সঠিক হতো না বলে আমার মনে হয়েছে৷''

সানিটা রাভিনা লাটভিয়া থেকে এসেছেন৷ বালু দিয়ে তাঁর বড়দিনের এই চিত্রকর্ম তৈরিতে আটদিন সময় লেগেছে৷ তিনি বলেন, ‘‘সম্ভবত বারো বা তের বছর বয়সে বালু দিয়ে ভাস্কর্য তৈরি শুরু করি আমি৷ সেটা ছিল লাটভিয়াতে৷ শিশুদের এক প্রতিযোগিতায় সেটা করেছিলাম যা বছরে একবার হয়৷ জুলাই মাসের ঘটনা ছিল সেটা৷ আমি সেখানে যাওয়া শুরু করি৷ প্রথমদিকে অবশ্য আমি কিছুই জিততে পারিনি৷ তবে, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি এই কাজে পারদর্শী হয়ে উঠি এবং প্রথম পুরস্কার পেতে শুরু করি৷''

ভিডিও দেখুন 03:37

বালু শিল্পকর্মে যিশু

ক্যানেরি দ্বীপের তাপমাত্রা এমন যে শীতের মাঝামাঝি সময়েও সেখানে সাঁতার কাটা যায়৷ অনেকটা গ্রীষ্মে বড়দিনের মৌসুমের মতো৷

লাস পামাসের জনপ্রিয় দ্বীপে আয়োজিত এই প্রদর্শনীতে গেলে দর্শনার্থীদের মধ্যে বড়দিনের মৌসুমের অনুভূতি সৃষ্টি হয়৷ যিশুর জন্মের কাহিনীর ভিত্তিতে তৈরি নানা ভাস্কর্য তৈরির এই উৎসব ১৪ বছর ধরে চলছে৷ চলতি বছর এখানে আটটি শিল্পকর্ম প্রদর্শিত হচ্ছে, যেগুলো তৈরিতে দু'হাজার টন বালু ব্যবহার করা হয়েছে৷

লাস পামাসের অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ কলম্বাস হাউস৷ এটারও বালুর ভাস্কর্য তৈরি করা হয়েছে যেটা দেখতে অনেকটা বাথলহামের মতো৷ কিছু শিল্পী তাদের কাজের মাধ্যমে কিছু গোপন বার্তাও দিচ্ছেন৷ সানিটা বলেন, ‘‘আমি এখানে ইংরেজি এম অক্ষরটি লিখেছি৷ এর অর্থ মারিয়া এবং মা৷ এটা আমার ক্ষুদ্রবার্তা৷ এবং আমি মাঝেমাঝে এরকম করি৷ কখনো কখনো ছোট প্রাণী লুকিয়ে রাখি৷ এবার আমি চিন্তা করেছি যে আমি এম লিখবো৷ যারা এটা দেখবে, বুঝবে৷ যারা দেখবেনা, বুঝবেনা৷ এটা মজা৷''

গ্রান ক্যানারিয়ায় বড়দিন উপলক্ষ্যে বালুর এসব শিল্পকর্ম প্রদর্শন করা হয় যা জানুয়ারির সাত তারিখ অবধি উপভোগ করা যাবে৷

বেনজামিন আলভারেজ গ্রুবার/এআই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন