বার্লিন হামলা: নিহতের পরিবারকে বিল পাঠানো হয়েছিল | বিশ্ব | DW | 19.12.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বার্লিন হামলা: নিহতের পরিবারকে বিল পাঠানো হয়েছিল

জার্মানির বার্লিনে বড়দিনের এক বাজারে হামলার এক বছর হচ্ছে আজ৷ ট্রাক নিয়ে চালানো ঐ হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছিলেন, আহত হন ৭০ জন৷ একবছর পর মানুষের মনে আজও প্রশ্ন, এই হামলা কি ঠেকানো যেত?

এছাড়া হামলার পর নিহতদের পরিবারকে তথ্য দিতে দেরি করা, তাঁদের কাছে হুমকিসহ ময়নাতদন্তের বিল পাঠানো, জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের তাঁদের সঙ্গে দেখা না করা ইত্যাদি বিষয়ও আলোচিত হচ্ছে৷

বার্লিনের ব্রাইটশাইডপ্লাৎসের ক্রিসমাস মার্কেটে ট্রাক নিয়ে হামলা করেছিলেন আশ্রয় আবেদন ব্যর্থ হওয়া টিউনিশিয়ার নাগরিক আনিস আমরি৷ ঐ হামলার পর নিহত কয়েকজনের পরিবারকে তাঁদের স্বজন হারানোর সংবাদ দিতে তিনদিন পর্যন্ত লেগেছিল৷ অথচ চেহারার উপর ভিত্তি করে পরিবারের সদস্যদের অন্তত আগাম সতর্কতা দেয়া যেত বলে মনে করেন কুর্ট বেক৷ হামলার পর সরকার তাঁকে হামলা পরবর্তী অবস্থা কীভাবে সামাল দেয়া হয়েছে তা নিয়ে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নিয়োগ করেছিল৷ গত সপ্তাহে তিনি তাঁর প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, হামলাপরবর্তী অবস্থা সামাল দেয়ার জন্য ‘প্রস্তুত ছিল না’ জার্মানি৷ এক্ষেত্রে নিহতদের পরিবারের কাছে ময়নাতদন্তের বিল পাঠানোর কথা উল্লেখ করেন তিনি৷ এমনকি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বিল দিতে দেরি হলে জরিমানা করার হুমকিও দেয়া হয়েছিল বলে জানান বেক৷ ‘‘আমি এ সব বিশ্বাস করতে চাইনি৷ কিন্তু আমার হাতে এমন চিঠি ছিল,’’ বলেন তিনি৷

গত মার্চে বার্লিন হামলায় নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছিলেন তৎকালীন জার্মান প্রেসিডেন্ট ইওয়াখিম গাউক৷ কিন্তু জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল দেখা না করায় অসন্তুষ্ট ছিলেন নিহতদের পরিবার৷ সম্প্রতি ‘ডেয়ার স্পিগেল' পত্রিকায় তাঁরা যৌথভাবে ম্যার্কেলের উদ্দেশে একটি চিঠিও লেখেন৷ এতে তাঁদের সঙ্গে দেখা না করার মাধ্যমে ম্যার্কেল তাঁর দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করছেন না বলে অভিযোগ করা হয়৷ এরপর অবশ্য সোমবার তাঁদের সঙ্গে দেখা করেছেন ম্যার্কেল৷ যদিও ম্যার্কেলের মুখপাত্র জানিয়েছিলেন, পত্রিকায় চিঠি প্রকাশের আগেই নিহতদের পরিবারের সঙ্গে ম্যার্কেলের বৈঠকের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছিল৷ কিন্তু ম্যার্কেল কেন আগেই নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেননি ? কুর্ট বেকের কাছে এর উত্তর জানতে চেয়েছিল ডয়চে ভেলে৷ বেক বলেন, ম্যার্কেল তাঁকে জানিয়েছেন যে, প্রেসিডেন্ট যেহেতু দেখা করেছেন তাই তিনি আর সেটা করেননি৷ ‘‘ম্যার্কেল ভালো বিশ্বাসেই এটা বলেছেন৷ তবে তিনি অবস্থা ভালোভাবে বিচার করতে পারেননি,'' বলেন তিনি৷

ম্যার্কেল নিজে তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনা স্বীকার করে নিয়ে বলেছেন, ‘‘এটা আমার কাছে পরিষ্কার যে, তাঁদের কষ্ট, তাঁদের জীবনের এই সম্পূর্ণ পরিবর্তন কখনো ঠিক হবার নয়৷ তবুও আমরা সমবেদনা জানাতে পারি৷ আর যে বিষয়গুলোর উন্নতি হওয়া আবশ্যক সেগুলো করতে পারি৷''

হতাহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে কমপক্ষে ১ দশমিক ৬ মিলিয়ন ইউরো দেয়া হয়েছে বলে বিচার মন্ত্রণালয়ের তথ্য বলছে৷

মার্কেট বন্ধ থাকবে

হতাহতদের প্রতি সম্মান জানাতে ব্রাইটশাইডপ্লাৎসের ক্রিসমাস মার্কেট আজ মঙ্গলবার সারাদিব বন্ধ থাকবে৷ জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক ভাল্টার স্টাইনমায়ার স্থানীয় গির্জায় নিহতদের স্মরণে আয়োজিত এক প্রার্থনায় অংশ নেন৷ এরপর নিহতদের নাম লেখা একটি ফলক উন্মোচন করা হয়৷ এছাড়া হামলার সময় রাত আটটা দুই মিনিটে ১২ মিনিট ধরে গির্জা ঘণ্টা বাজানো হবে৷

ভিডিও দেখুন 03:41
এখন লাইভ
03:41 মিনিট

Berlin Christmas market attack: one year on

আমরি পুলিশের নজরে ছিল?

হামলাকারী আনিস আমরি ২০১৫ সালে ইটালি থেকে জার্মানিতে এসেছিলেন৷ এরপর বিভিন্ন নামে তিনি বিভিন্ন জায়গায় নিবন্ধন করেন৷ এই বিষয়টি ধরতে না পারায়  এতদিন পুলিশের সমালোচনা করা হয়েছে৷ তবে ভেল্ট আম সনটাগ পত্রিকা রবিবার জানিয়েছে, জার্মানির গোয়েন্দারা নাকি আমরিকে কঠোর নজরের মধ্যে রেখেছিলেন৷ তাঁর মাধ্যমে অন্যদের ধরার জন্য আমরিকে মুক্ত অবস্থায় রাখা হয়েছিল বলে মনে করছে পত্রিকাটি৷ বার্লিন হামলার চারদিন পর আমরিকে গুলি করে হত্যা করে ইটালির পুলিশ৷

জেডএইচ/ডিজি (এএফপি, ডিডাব্লিউ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন