বার্লিন প্রাচীর পতনের ২২ বছর পরও পিছিয়ে রয়েছে পূর্বাঞ্চল | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 10.11.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

সমাজ সংস্কৃতি

বার্লিন প্রাচীর পতনের ২২ বছর পরও পিছিয়ে রয়েছে পূর্বাঞ্চল

দুই জার্মানির পুনরেকত্রীকরণের পর দুই দশক কেটে গেছে৷ সরকারি হিসেব অনুযায়ী দেশের পূর্বাঞ্চলে যথেষ্ট উন্নয়ন ঘটলেও বাস্তবে দুই অংশের মধ্যে এখনো অর্থনৈতিক বৈষম্য রয়ে গেছে৷

পূর্বাঞ্চলে উন্নয়নের গতি আশানুরূপ হচ্ছে না

পূর্বাঞ্চলে উন্নয়নের গতি আশানুরূপ হচ্ছে না

বার্লিন প্রাচীর পতনের পর ২২ বছর কেটে গেছে৷ বুধবারই সরকার এক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, যাতে দেখা যাচ্ছে যে অর্থনৈতিক কার্যকলাপের ক্ষেত্রে জার্মানির পূর্বাঞ্চল পশ্চিমের তুলনায় এখনো বেশ পিছিয়ে রয়েছে৷ তবে আশার কথা হলো, সাবেক পূর্ব জার্মানির ৫টি রাজ্য ধীরে হলেও ক্রমশঃ এগিয়ে চলেছে৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হান্স-পেটার ফ্রিডরিশ এপ্রসঙ্গে মনে করিয়ে দিয়েছেন, যে পূবের জাতীয় গড় উৎপাদনের দিকে তাকালেই এই প্রবণতা দেখা যাবে৷ এখন তা পশ্চিমের প্রায় ৭৩ শতাংশের কাছাকাছি৷

German Interior Minister Hans-Peter Friedrich speaks during the presentation of the annual report of Germany's domestic intelligence service in Berlin, Germany, Friday, July 1, 2011. Germany's top security official says that the terrorist threat to the country hasn't decreased even with the death of Osama bin Laden. (AP Photo/Markus Schreiber)

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হান্স-পেটার ফ্রিডরিশ

আসলে পূবে শুরু থেকেই কিছু বিশেষ সমস্যা রয়ে গেছে, যার ফলে অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি যথেষ্ট দ্রুত হতে পারছে না৷ এর মধ্যে অনেকগুলি একে অপরের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত৷ যেমন পূবে বেতনের হার পশ্চিমের তুলনায় কম৷ অবসর ভাতার ক্ষেত্রেও এই বৈষম্য চোখে পড়ে – গড় হিসেব অনুযায়ী যা পশ্চিমের ৮৯ শতাংশ৷ তবে পূবে বেকারত্বের হার বহুদিন পশ্চিমের তুলনায় অনেক বেশি ছিল৷ গত ১২ মাসে তা অনেক কমে গেছে৷ পুনরেকত্রীকরণের পর এই প্রথম পূবে বেকারদের সংখ্যা ১০ লক্ষের থেকে কমে গেছে৷ বর্তমানে সেখানে কর্মহীনদের সংখ্যা ৮৬০,৫০০৷ তাছাড়া গত ২০ বছরে মানুষের আয় প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে বলে দাবি করেছেন জার্মান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রিডরিশ৷ বিকল্প জ্বালানির বিকাশের ক্ষেত্রে জার্মানির পূর্বাঞ্চল অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারে বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন৷

Diplomantin vor der Karte der neuen Bundesländer --- DW-Grafik: Peter Steinmetz 2009_08_24-Studieren-in-den-neuen-Bundesländern

তরুণ প্রজন্মের একটা বড় অংশ পূর্বাঞ্চল ছেড়ে চলে গেছে

সরকার পূবের উন্নয়ন নিয়ে এমন উচ্ছ্বাস দেখালেও বিরোধীরা অভিযোগ করছে, যে সরকার ইচ্ছে করে দেশের পূর্বাঞ্চল সম্পর্কে অনেক কঠিন সত্য গোপন করে যাচ্ছে৷ যেমন সাবেক পূর্ব জার্মানির কমিউনিস্ট পার্টির উত্তরসুরি – আজকের বামপন্থী দল ‘ডি লিঙ্কে' দাবি করছে, যে গোটা ইউরোপে বেতনের হারের বিচারে জার্মানির পূর্বাঞ্চল সবচেয়ে পিছিয়ে রয়েছে৷ সেখানে বেকারত্বের হার এখনো পশ্চিমের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ, অর্থাৎ ১০.২ শতাংশ বেশি৷

দুই জার্মানির পুনরেকত্রীকরণের পর পূবের তরুণ প্রজন্মের একটা বড় অংশ উজ্জ্বল ভবিষ্যতের আশায় পশ্চিমে পাড়ি দিয়েছিল৷ নিজেদের এলাকায় উন্নয়নের সম্ভাবনার কোনো আশা তাদের মনে ছিল না৷ কমিউনিস্ট পূর্ব জার্মানির বেশিরভাগ কল-কারখানা বাজার অর্থনীতির কাঠামোর মধ্যে টিকে থাকতে পারে নি৷ ফলে সার্বিক উন্নয়ন ব্যাহত হয়েছে৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন