বার্লিনে সিরিয়া বৈঠক, অস্ত্রবিরতির নতুন উদ্যোগ | বিশ্ব | DW | 04.05.2016
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

বার্লিনে সিরিয়া বৈঠক, অস্ত্রবিরতির নতুন উদ্যোগ

সিরিয়া সংকটকে ঘিরে কূটনৈতিক তৎপরতা তুঙ্গে৷ বুধবার বার্লিনে এক বৈঠকে বর্তমান অচলাবস্থা কাটানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে৷ জার্মানি ও ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও তাতে অংশ নিচ্ছেন জাতিসংঘের দূত ও এক সিরীয় বিরোধী নেতা৷

সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতি সংক্রান্ত বোঝাপড়া কাগজে-কলমে স্থির হলেও কার্যক্ষেত্রে তার প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে না৷ তার সর্বশেষ দৃষ্টান্ত হলো আলেপ্পো শহরের উপর হামলা৷ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এর জন্য সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে আবার সতর্ক করে দিয়েছেন৷ অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করতে থাকলে আসাদকে তার পরিণাম ভোগ করতে হবে৷ তখন পুরোপুরি যুদ্ধ শুরু হয়ে যেতে পারে৷ এটা হলে আসাদ বা রাশিয়া, কারও লাভ হবে না, বলেন কেরি৷

এমনই প্রেক্ষাপটে জার্মানিতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এক কূটনৈতিক বৈঠক৷ জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক ভাল্টার স্টাইনমায়ার, ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জঁ মার্ক এরো এবং জাতিসংঘের বিশেষ দূত স্তাফান দে মিস্তুরা ছাড়াও তাতে অংশ নিচ্ছেন সিরিয়ার স্বীকৃত বিরোধী পক্ষের সমন্বয়ক রিয়াদ হিজাব৷

এদিকে বুধবারই সিরিয়া পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ৷ আলেপ্পো শহরের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে এক রিপোর্টের ভিত্তিতে অস্ত্রবিরতি কার্যকর করার নতুন উদ্যোগ আশা করা হচ্ছে৷ রাশিয়াও তাতে গঠনমূলক ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে৷ জাতিসংঘের বিশেষ দূত স্তাফান দে মিস্তুরা শান্তি ফেরানোর নতুন উদ্যোগ সম্পর্কে কিছুটা আশাবাদী৷

এসবি/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন