বার্লিনে রেস্তোরাঁর মধ্যেই চাষবাস! | অন্বেষণ | DW | 07.09.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

বার্লিনে রেস্তোরাঁর মধ্যেই চাষবাস!

শহুরে জীবনযাত্রায় ‘স্পেস' বা জায়গার অভাব পদে পদে টের পাওয়া যায়৷ বার্লিনের এক রেস্তোরাঁ এক অভিনব উপায়ে লেটুস চাষ শুরু করেছে৷ গ্রাহকদের সামনেই শোভা পাচ্ছে লেটুসের ক্ষেত৷

‘গুড ব্যাংক' রেস্তোরাঁর লেটুস বেশ তাজা ও স্বাস্থ্যকর৷ বার্লিনের এই রেস্তোরাঁতে গেলে মনে হবে কল্পবিজ্ঞান ছায়াছবির সেট৷ কারণ এই লেটুস পাতা চাষ হচ্ছে রেস্তোরাঁর ভিতরের দেওয়ালে৷ রেস্তোরাঁর প্রতিনিধি এমা পাউলিন বলেন, ‘‘অনেক সিটি-ফার্মিং, ভার্টিকাল ফার্মিং প্রকল্প রয়েছে৷ কিন্তু সাধারণ মানুষ হিসেবে তার নাগাল পাওয়া কার্যত অসম্ভব৷ ফলে এই প্রদ্ধতি দেখার অভিজ্ঞতা অনেকেরই নেই৷ গুড ব্যাংকে আমরা সেটাই সম্ভব করতে চেয়েছি৷ এখানে যে ভার্টিকাল-ফার্মিং মডিউল রয়েছে, তা আমাদের শাকসবজির চাহিদার একটা বড় অংশ পূরণ করে৷ একেবারে গ্রাহকদের চোখের সামনে৷''

ভিডিও দেখুন 02:23

রেস্তোরাঁর মধ্যে কীভাবে হচ্ছে চাষবাস?

এখনো পর্যন্ত তিন ধরনের সবজি চাষ চলছে৷ বার্লিনের ‘ইনফার্ম' নামের স্টার্টআপ কোম্পানি তা যোগান দিয়েছে৷ তথাকথিত ‘হাইড্রোপোনিক সিস্টেম' গাছে পানি, অক্সিজেন ও প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগান দেয়৷ বিশেষ এক এলইডি আলো সূর্যের আলোর বিকল্প হিসেবে কাজ করে৷ তাই লেটুস পাতার অবস্থা অপরিবর্তিত থাকে, সাধারণ খেতে যেমনটা সম্ভব হয় না৷

লেটুস তোলা হলে নতুন গাছ বসানো হয়৷ শহরের অব্যবহৃত জায়গা ‘ভার্টিকাল ফার্মিং'-এর ফলে কাজে লাগছে৷ খাবারের বাকি উপকরণ অবশ্য আগের মতোই কিনতে হচ্ছে৷ মাসচারেক আগে ‘গুড ব্যাংক' চালু হয়েছে৷ ক্রেতাদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া শোনা যাচ্ছে৷ কেউ বলছেন, ‘‘ভাবা যায় না, যে এখানেই চাষ হচ্ছে৷ হয়তো লোক দেখানোই আসল কথা৷'' অনেকের আবার এ বিষয়ে কোনো ধারণা নেই৷ কেউ মনে করেন, ‘‘ব্রান্ডেনবুর্গ থেকে লেটুস এসে সেটা জেনেও একইরকম ভালো লাগতো৷ একইরকম তাজা হতো৷ দেয়ালে গজানোর দরকরার ছিল না৷''

এই পদ্ধতি কতটা সফল হয়, ভবিষ্যতই তা বিচার করতে পারবে৷

বিরগিট ভলস্কে/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

বিজ্ঞাপন