বার্লিনে বোরকা পরা নারীর উপর হামলাকারী গ্রেপ্তার | বিশ্ব | DW | 21.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বার্লিনে বোরকা পরা নারীর উপর হামলাকারী গ্রেপ্তার

জার্মানির রাজধানী বার্লিনের এক সুপারমার্কেটে সোমবার সন্ধ্যায় বাজার করতে গিয়েছিলেন ২৮ বছর বয়সি এক নারী৷ সেই সময় আরেক নারী জোর করে তাঁর বোরকা খুলে ফেলেন এবং তাঁর উদ্দেশ্যে বর্ণবাদী মন্তব্য করেন৷

মঙ্গলবার এসব তথ্য জানায় পুলিশ৷ হামলাকারী নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ এখন তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে৷

প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, যে নারীর উপর হামলা হয়েছে, তিনি তুরস্কের নাগরিক৷ জোর করে বোরকা খোলার সময় তিনি মাথায় আঘাত পেয়েছেন৷ আর যে নারী হামলা চালিয়েছেন, তিনি আজারবাইজান থেকে এসেছেন৷ অবশ্য প্রাথমিকভাবে তাঁর জাতীয়তা জানা যায়নি৷

উল্লেখ্য, জার্মানিতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপর পুরো মুখ ঢাকা বোরকা পরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে৷ এছাড়া বাভারিয়াসহ কয়েকটি রাজ্যে নির্দিষ্ট কিছু প্রকাশ্য স্থানে বোরকা পরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে৷

তবে  ইসলামবিরোধী গোষ্ঠীগুলো জার্মানিতে বোরকার উপর পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা জারির আহ্বান জানিয়েছে৷

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে জার্মানির নর্থ রাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের এক রেস্তোরাঁয়  নিকাব পরিহিত এক নারীকে ঢুকতে না দেয়ার অভিযোগ উঠেছিল৷

এদিকে, ২০১৭ সালের প্রথম ছয় মাসে জার্মানিতে মুসলিমদের উপর ১৮টি সহিংস আক্রমণের ঘটনা ঘটে বলে সংসদে জানানো হয়েছিল৷

এছাড়া একই বছরের প্রথম ছয় মাসে ৩৯২টি ইসলামবিদ্বেষ প্রণোদিত ঘটনা ঘটেছিল বলেও জানানো হয়৷ ইন্টারনেটে মুসলিমদের অথবা মুসলিম শরণার্থীদের বিরুদ্ধে প্ররোচনা – তথাকথিত ‘হেট স্পিচ' – হুমকি বা শাসানিমূলক বার্তা, রাজপথে হিজাব পরিহিত মহিলা অথবা মুসলিম পুরুষদের উপর আক্রমণ, এছাড়া মুসলিমদের বাড়ি অথবা সম্পত্তির ক্ষতিসাধন কিংবা দেয়ালে নাৎসি স্লোগান লেখা ইত্যাদি ইসলামবিদ্বেষী অপরাধমূলক কার্যকলাপের মধ্যে পড়ে৷

জেডএইচ/এসিবি (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন