বার্লিনেই খান ‘অ্যামেরিকান ব্রেকফাস্ট′ | অন্বেষণ | DW | 20.04.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

বার্লিনেই খান ‘অ্যামেরিকান ব্রেকফাস্ট'

মার্কিন মুলুকের বাসিন্দা অলিভার মিলার মার্কিন কায়দার একটি ‘ডাইনার' খুলেছেন খোদ বার্লিনে, যেখানে স্বভাবতই মার্কিন কায়দায় সারাদিন প্রাতরাশ করা যায়: মার্কিন প্রাতরাশ!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সেটাই স্বাভাবিক: শুধু সকালে কেন, ২৪ ঘণ্টাই প্রাতরাশ করা চলে৷ আর সেই ব্রেকফাস্টের সঙ্গে গ্রাহক অফুরন্ত কফি পান করতে পারেন৷ মার্কিন মুলুকের অধিবাসী অলিভার মিলার ঠিক সেই কায়দাতেই বার্লিনে একটি রেস্টুরেন্ট খুলেছেন, নাম রেখেছেন ‘নালু ডাইনার', যেখানে সারাটা দিন প্রাতরাশ করা চলে৷

মার্কিন প্রাতরাশের মূল উপাদান হল ডিম – আর তার সঙ্গে পাঁউরুটির টোস্ট কিংবা ময়দার বদলে আলু দিয়ে তৈরি প্যানকেক৷ এরকম ৫০ ধরনের ব্রেকফাস্ট অর্ডার করা যায়৷

মিলার জানালেন, ‘‘একটি মার্কিন ‘ডাইনার'-এ প্রাতরাশ ফরমায়েশ করার সময় আপনি যেভাবে চান, ডিম অর্ডার করতে পারেন; তার কোনো বাঁধাধরা নেই; স্ক্র্যাম্বল, ফ্রাই কিংবা পোচ করা ডিম, আপনার যেমন পছন্দ৷''

ইউরোপের প্রাতরাশের সঙ্গে মার্কিন প্রাতরাশের মূল পার্থক্য হল নানা ধরনের গরম বা রান্না করা খাবারদাবার, অর্থাৎ ভাজাভুজি৷ এ ধরনের রান্না সহজ হওয়া চাই ও তাড়াতাড়ি রান্না করতে পারা চাই৷

মার্কিন মুলুকে এ ধরনের রান্নাকে ‘শর্ট অর্ডার কুকিং' বা স্বল্প সময়ের ফরমাশে রান্না বলা হয়ে থাকে৷ যেমন প্যানকেক৷ যেহেতু মার্কিন প্যানকেক ইউরোপীয় প্যানকেকের চেয়ে পুরু, সেহেতু ময়দাটাও পুরু করে গুলতে হয়৷ একদিক বাদামি হয়ে এলেই প্যানকেকটা উলটে দিতে হয়৷ ‘নালু ডাইনার'-এ প্যানকেকের সঙ্গে সার্ভ করা হয় হাতে গড়া মাংসের বড়া৷

মার্কিন প্রাতরাশ ডিম ছাড়া চলে না – যেমন অমলেট৷ তারও রকমফের আছে, যেমন তথাকথিত ডেনভার অমলেটে পুড়ে দেয়া হয় ক্যাপসিকাম আর হ্যাম৷

যুক্তরাষ্ট্রে প্রাতরাশের সব ক'টি পদ একসঙ্গে একই পাত্রে পরিবেশন করা হয়ে থাকে৷ কাজেই প্লেটে মিষ্টি খাবারের পাশাপাশি নোনতা খাবারও থাকে৷

মার্কিন ডাইনারের আরেকটি বিশেষত্ব হল তার কর্মী ও পরিচারকদের আতিথেয়তা ও মিষ্টি ব্যবহার৷ সে হিসেবে অলিভার মিলার তাঁর স্বদেশের এক টুকরো বার্লিনে নিয়ে এসেছেন বৈকি৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক