বাবরি ধ্বংসের দৃশ্য এবার ছোটদের নাটকে | বিশ্ব | DW | 17.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

বাবরি ধ্বংসের দৃশ্য এবার ছোটদের নাটকে

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর উপস্থিতিতে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের দৃশ্য অভিনয় করে দেখাল শিশুরা৷ প্রতিষ্ঠিত হল রাম মন্দির৷ ঘটনাটি ঘটেছে তামিলনাড়ুর একটি আরএসএস চালিত স্কুলে৷ যা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে নাগরিক সমাজে৷

বিশিষ্টজনদের একটা বড় অংশ বলছেন, দেশে হিন্দুত্ববাদের চাষ হচ্ছে৷ কী ভাবে হচ্ছে, তা দেখিয়ে দিল দক্ষিণ ভারতের তামিলনাড়ুর একটি স্কুল৷ সম্প্রতি স্কুলের এক অনুষ্ঠানে ছাত্রদের নাটকে উঠে এসেছে বাবরি মসজিদ ভেঙে রাম মন্দির তৈরির দৃশ্য৷ যা আলোড়ন ফেলে দিয়েছে গোটা দেশে৷ ১৯৯২ সালে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনা নিয়ে শিশুদের দিয়ে এমন নাটক করানোর পরে প্রশ্ন উঠেছে, যে মামলা এখনও আদালতে বিচারাধীন, তা নিয়ে এমন নাটক কি আদৌ করানো যায়? এ ভাবে শিশুদের মনে বিদ্বেষের বীজ পুঁতে দেওয়া নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে নাগরিক সমাজ৷ 

তামিলনাড়ুর যে স্কুলে এই ঘটনা ঘটেছে, সেটির পরিচালক আরএসএস নেতা প্রভাকর ভাট৷ স্কুলের নাম শ্রী রাম বিদ্যাকেন্দ্র হাই স্কুল৷ রবিবার সেই স্কুলের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া এবং প্রাক্তন আইপিএস এবং রাজনীতিক কিরণ বেদি৷ এ ছাড়াও রাজ্যের আরও বেশ কয়েকজন বিজেপি নেতা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন৷ সেখানেই ১১ এবং ১২ ক্লাসের ছাত্ররা মঞ্চের উপর বাবরি মসজিদের পোস্টারের সামনে হাজির হয়৷ স্পিকারে বাজতে শুরু করে, 'হনুমান ভক্তরা হনুমানের শক্তি দিয়ে মসজিদ ভেঙে ফেলো৷'

মঞ্চ জুড়ে ধ্বনিত হয়, 'বলো শ্রী রামচন্দ্রের জয়৷' এরপরেই পোস্টারের মসজিদ নামিয়ে সেখানে রাম মন্দির স্থাপন করে ছাত্রছাত্রীরা৷ সোমবার থেকে সেই দৃশ্য সোশ্যাল নেটওয়ার্কে ভাইরাল হয়ে যায়৷ নাগরিক সমাজে নিন্দা শুরু হয়৷ 

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গৌড়াকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ওই নাটক হওয়ার পরে তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন৷ কিরণ বেদি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে না চাইলেও পরে একটি টুইট করেন৷ 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, যে আরএসএস নেতার স্কুল ঘিরে এই বিতর্ক শুরু হয়েছে, সেই প্রভাকর ভাটের বিরুদ্ধে বার বার সরব হতেন হিন্দুত্ববাদী আততায়ীদের হাতে খুন হওয়া বিশিষ্ট সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশ৷ একাধিকবার ভাটের দুটি স্কুলের বিরুদ্ধে লিখেছেন তিনি৷ বলার চেষ্টা করেছেন, কী ভাবে ওই স্কুলগুলিতে হিন্দুত্ববাদ এবং বিভেদের মন্ত্র ছোটদের মনে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়৷ রবিবারের ঘটনায় গৌরী লঙ্কেশের বক্তব্যই স্পষ্ট হল বলে দাবি করছে নাগরিক সমাজ৷ 

যদিও শিশুদের দিয়ে এই অভিনয় করানোর মধ্যে কোনও অন্যায় দেখছেন না স্কুলের পরিচালক প্রভাকর ভাট৷ তাঁর বক্তব্য, ''জালিয়ানওয়ালাবাগের ঘটনা যদি নাটকে আসতে পারে, তাহলে বাবরির ঘটনা আসবে না কেন? আমি এর মধ্যে কোনও অন্যায় দেখছি না৷'' একই সঙ্গে বাবরি ধ্বংস নিয়ে সুপ্রিমকোর্টে যে মামলা চলছে, তা নিয়েও বেশ কিছু আলটপকা মন্তব্য করেন তিনি৷

এসজি/জিএইচ (নিউজ মিনিট, দ্য ওয়্যার )

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন