বাতিল আর বর্জনের সিটি নির্বাচন | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 30.07.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বাতিল আর বর্জনের সিটি নির্বাচন

বরিশালে আওয়ামী লীগ ছাড়া আর সব মেয়র প্রার্থীই নির্বাচন বর্জন করেছেন৷ সিলেটে নির্বাচন বাতিলের দাবি বিএনপি প্রার্থীর৷ রাজশাহীতে ভোটকেন্দ্র দখলের অভিযোগ তুলে ভোটকেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছেন বিএনপির প্রার্থী৷

বরিশালে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) মেয়র প্রার্থী ডা. মনীষা চক্রবর্তীর ওপর হামলা হয়েছে৷ সকালে এই হামলার ঘটনা ঘটে৷ মনীষার অভিযোগ, ‘‘সদর গার্লস স্কুল কেন্দ্রে দেখলাম সব ব্যালটে মেয়রের সিল নৌকায় দেয়া৷ আমরা যখন প্রিজাইডিং অফিসারকে জানালাম উনি কিছু করলেন না, বরং বসে থাকলেন৷ তারপর যখন আমরা ব্যালট পেপারটা দেখতে গেলাম, তখন আওয়ামী লীগের ব্যাজ পরা দু'জন আমাকে ধাক্কা মেরে পেছন থেকে প্রচণ্ডভাবে আঘাত করে এবং আমার হাত থেকে ব্যালট নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে৷ একজন লাল পাঞ্জাবি এবং আরেকজনের নীল শার্ট পরা ছিল৷ আমার কাছে তাদের ছবিও আছে৷ আমার নখ পর্যন্ত ভেঙে গেছে৷ একজন মেয়র ক্যান্ডিডেটকে যদি তারা এভাবে আঘাত করে....তাহলে তো এই নির্বাচন করার আর কোনো অর্থ থাকে না৷''

ভিডিও দেখুন 02:11

মনীষা চক্রবর্তী ডিডাব্লিউ-কে যা বললেন

নির্বাচনে অনিয়ম, ভোট কারচুপি, এজেন্টদের বের করে দেওয়া, ব্যালট ছিনতাই ও জালভোটসহ বিভিন্ন অভিযোগে বরিশালে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার, বাসদ মেয়র প্রার্থী ডা. মনীষা চক্রবর্তী ও ইসলামি আন্দোলনের প্রার্থী ওবায়দুর রহমানসহ মোট পাঁচজন মেয়রপ্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন৷

বরিশালের সাংবাদিক শামসুর রহমান ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘বরিশালে আওয়ামী লীগের লোকজন ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করেছে৷ তারা বিএনপি ও অন্য মেয়র প্রার্থীদের এজন্টদের ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দিয়েছে৷ বাসদ-এর মেয়র প্রার্থী ডা. মনীষা চক্রবর্তী আগেই নৌকায় সিল মারা ব্যালট পেপার দেখাতে গেলে তাঁর ওপর হামলা হয়৷''

অডিও শুনুন 01:10

‘বরিশালে আওয়ামী লীগের লোকজন ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করেছে’

অন্যদিকে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি সমর্থিত ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী৷ সিলেট আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে গিয়ে সোমবার দুপুরে তিনি এই দাবি করেন৷ মহানগরী এলাকায় ভোট জালিয়াতি, ভোটকেন্দ্র দখলসহ নানা বিষয়ে অভিযোগ দাখিল করেছেন তিনি৷

আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘‘সিলেটের অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোট ডাকাতি করে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ৷ নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী নীরব দর্শকের ভূমিকায় রয়েছে৷ নির্বাচন কমিশনের অফিসকে জানিয়েছি যে এখানে সকাল থেকে ১৯, ২০ ও ২১ নং ওয়ার্ডসহ আরও কয়েকটি কেন্দ্রে ধানের শীষের এজেন্টদের ঢুকতে দেয়া হয়নি৷''

বিকেলে জামায়াতের প্রার্থী এহসানুল মাহবুব জুবায়েরও নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বলে খবর৷

সিলেটের সাংবাদিক তুহিনুল হক তুহিন ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘সকালে ভোটগ্রহণের শুরুতে প্রচুর ভোটার ছিল৷ কিন্তু বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভয় আর আতঙ্কে ভোটকেন্দ্র ফাঁকা হয়ে যায়৷ এরপর ভোটকেন্দ্রে ঢুকে ব্যালট পেপারে সিল দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে৷''

অডিও শুনুন 00:44

‘সিলেটে ব্যালট পেপারে সিল দেয়ার অভিযোগ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে’

এদিকে ভোট শুরুর আগেই বিএনপির পোলিং এজেন্টদের ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগে রাজশাহী মহানগরীর বিনোদপুর ইসলামিয়া কলেজে অবস্থান নেন রাজশাহীতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল৷ সোমবার সকাল ৮টার দিকে নগরীর স্যাটেলাইট কেন্দ্রে তাঁর ভোট দেওয়ার কথা ছিল৷ তবে দুপুর ১টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত তিনি একই স্থানে অবস্থান নেন৷ তিনি এই কেন্দ্রে ব্যালটের হিসাব দাবি করেছেন৷

অভিযোগে বলা হয়েছে, সোমবার সকালে রাজশাহীর বিনোদপুর ইসলামিয়া কলেজে বিএনপির প্রতীক ধানের শীষের পোলিং এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়৷ পরবর্তীতে ধানের শীষের ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে যেতে বাধা দেয়া হয়৷ বুলবুলও শেষ পর্যন্ত প্রতিবাদ স্বরূপ ভোট দেননি৷

রাজশাহীর সাংবাদিক দুলাল আব্দুল্লাহ ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘বিএনপির লোকজন সোমবার ভোটগ্রহণের শুরু থেকেই তেমন মাঠে ছিলেন না৷ তারপরও বিএনপির এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে৷ আসলে অনেকের ভোট আগেই দেয়া হয়ে যায়৷''

অডিও শুনুন 01:24

‘রাজশাহীতে অনেকের ভোট আগেই দেয়া হয়ে গেছে’

তিন সিটি নির্বাচনে বিএনপি যে অভিযোগ করেছে, তা মিথ্যা বলে ঢাকায় মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ৷ তিনি বলেন, ‘‘এটা বিএনপির পুরনো অভ্যাস৷ পরাজয়ের শঙ্কা থেকেই বিএনপি এমন অভিযোগ করছে৷''

তিনি বলেন বলেন, ‘‘নির্বাচনের পরিবেশ উৎসবমুখর৷ দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া কোথাও অপ্রীতিকর পরিস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি৷ বিএনপি সুনির্দিষ্ট প্রমাণ দিক যে কোন কেন্দ্র থেকে তাদের এজেন্ট বের করা হয়েছে৷ নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ করতেই বিএনপি এমন অভিযোগ করছে৷''

এছাড়া ‘‘বরিশালের দু'টি কেন্দ্র থেকে আওয়ামী লীগের এজেন্টকে বের করে দেয়া হয়েছে'' বলে আরো দাবি করেন তিনি৷

প্রসঙ্গত, তিন সিটিতে মোট ভোটার ৮ লাখ ৮২ হাজারেও বেশি৷ তিন সিটি মিলিয়ে ভোট কেন্দ্র ৩৯৫টি৷ এর মধ্যে ১৫টি কেন্দ্রে ভোট হয়েছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে৷ মেয়র পদে তিন সিটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মোট ১৯ জন৷ সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়েছে৷ ওদিকে অনিয়মের অভিযোগে কয়েকটি ভোটকেন্দ্রের ভোট স্থগিত করা হয়েছে বলেও খবর৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন