বাকি শিক্ষার্থীদের এখনই চীন থেকে না আনার পরামর্শ | বিশ্ব | DW | 17.02.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বাকি শিক্ষার্থীদের এখনই চীন থেকে না আনার পরামর্শ

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি থাকায় চীনের হুবেই প্রদেশে আটকে পড়া ১৭১ বাংলাদেশিকে এখনই দেশে না ফেরানোর পরামর্শ দিয়েছেন চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং৷

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক আলোচনায় তিনি একথা বলেন বলে জানায় ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম৷

লি বলেন, ‘‘আমার পরামর্শ তাদেরকে যেন এখনই ফিরিয়ে আনা না হয়, কারণ, তাতে এই দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি থেকে যায়৷''

ঝুঁকির বিষয়টি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি জাপানে ট্যাক্সি চালকের সংস্পর্শে এসে বেশ কয়েকজনের সংক্রমিত হওয়ার কথা জানান৷

নভেল করোনা ভাইরাসে চীনে ১ হাজার ৭৭৫ জনের মৃত্যু এবং ৭০ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন৷ সেখানে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে উদগ্রীব৷ গত ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিমানের একটি উড়োজাহাজ চীনের উহান থেকে ৩১২ জনকে ফিরিয়েও আনে৷ কিন্তু এখন বিমানের ওই ক্রুদের অন্যদেশে ঢুকতে সমস্যা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সরকার৷

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া রোধে চীন সরকার কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে৷ বিশ্বের অন্যান্য দেশও চীনাদের ভিসা বাতিলসহ নানা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে৷

 চীনে আটকে পড়া ১৭১ বাংলাদেশিকে ফেরানোর বিষয়ে একদিন আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছিলেন, হুবেই প্রদেশে আটকে পড়াদের দেশে ফেরানোর কাজ চলছে৷ তবে কবে নাগাদ তারা ফিরতে পারে সেটা চীন সরকারের অনুমোদনের উপর নির্ভর করছে৷

সোমবার চীনা রাষ্ট্রদূতকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার ফেরানোর প্রস্তুতি নিলে চীনের অনুমতি পাওয়া যাবে৷

‘‘হুবেই থেকে এখন কোনো বিমান নেই৷ বাংলাদেশের বিমান গেলে সেটির পাইলট ও ক্রুরা অন্য দেশে ঢুকতে পারছে না৷ এটা বড় ধরনের জটিলতা৷ আমরা বিকল্প খুঁজছি৷ অনুমতি কোনো সমস্যা না, সমস্যা হলো কারিগরি বিষয়গুলো৷''

এসএনএল/এসিবি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন