1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ইউক্রেন
ছবি: Evgeniy Maloletka/AP Photo/picture alliance

বাইডেনের মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতায় মস্কো

১৭ মার্চ ২০২২

পুটিনকে যুদ্ধাপরাধী বলেছিলেন বাইডেন। ক্রেমলিন তার তীব্র বিরোধিতা করে পাল্টা বিবৃতি দিয়েছে।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%A4%E0%A7%80%E0%A6%AC%E0%A7%8D%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%B0%E0%A7%8B%E0%A6%A7%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%AE%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%95%E0%A7%8B/a-61155405

বুধবার ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন মন্তব্য করেছিলেন, 'ইউক্রেনে পুটিন যা করছেন, তা যুদ্ধাপরাধ। পুটিন যুদ্ধাপরাধী।' বৃহস্পতিবার মস্কো বাইডেনের এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছে। তারা বলেছে, বাইডেনের বক্তব্য মিথ্যা এবং সম্পূর্ণভাবে অগ্রহণযোগ্য। ক্ষমাহীন মন্তব্য করেছেন বাইডেন। তাস নিউজ খবরটি প্রথম প্রকাশ করে।

বস্তুত, বুধবার ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি মার্কিন কংগ্রেসে একটি ভিডিও বক্তৃতা করেন। সেখানে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ছবি তুলে ধরেন প্রেসিডেন্ট। অভিযোগ করেন, সাধারণ মানুষের উপর আক্রমণ চালাচ্ছে রাশিয়া। এরপরেই অ্যামেরিকা ইউক্রেনকে ৮০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার সাহায্যের কথা ঘোষণা করে। বাইডেন স্বয়ং এই ঘোষণা করেছেন। বলা হয়েছে, মানবিক সাহায্যের পাশাপাশি ইউক্রেনকে ড্রোন এবং অ্যান্টি এয়ারক্রাফট মিসাইল সিস্টেম দেওয়া হবে। দেশের সাধারণ মানুষদের বাঁচাতে ইউক্রেনের ওই অস্ত্রের প্রয়োজন বলে অ্যামেরিকা মনে করে।

বস্তুত, এর আগে তার বক্তৃতায় জেলেনস্কি বলেছিলেন, অ্যামেরিকা-সহ পশ্চিমা দেশগুলি ইউক্রেনকে সাহায্য করলেও তা যথেষ্ট নয়। ইউক্রেনের আরো সাহায্য প্রয়োজন।

জার্মানির বার্তা

এদিকে ইউক্রেনে লড়াইয়ের কারণে শরণার্থীর সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আনালেনা বেয়ারবক ইউরোপের বাইরের দেশগুলির কাছে আবেদন জানিয়েছেন, সকলে যেন শরণার্থী সংকটের বিষয়টি মানবিক চোখে দেখেন। এবং সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন।

এখনো পর্যন্ত প্রায় ৩০ লাখ শরণার্থী ইউক্রেন ছেড়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিয়েছেন। এর মধ্যে অনেকেই সব হারিয়ে দেশ ছেড়েছেন। অনেকে হারিয়েছেন গোটা পরিবারকে। মানবিক চোখে এই মানুষদের আশ্রয় দিতে হবে বলে মনে করেন বেয়ারবক। অ্যামেরিকাকে বিশেষ করে সাহায্যের হাত বাড়ানোর কথা বলেছেন বেয়ারবক।

প্রতিযোগিতায় না

এদিকে এরই মধ্যে শুরু হচ্ছে মাল্টি স্পোর্ট ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ। সেখানে রাশিয়া এবং বেলারুশ অংশ নিতে পারবে না। মিউনিখে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রতিযোগিতা। রাশিয়া এবং বেলারুশের ক্রীড়া কর্মকর্তারা তো বটেই, খেলোয়াড়রাও সেখানে অংশ নিতে পারবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এসজি/জিএইচ (রয়টার্স, এপি, এএফপি, টাস নিউজ)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch |  Chaos am Flughafen Dhaka

বিমানবন্দরে চুরির ঘটনা থামছে না কেন?

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান