বাংলা উইকি’র পরিধি বাড়লেও মান নিয়ে বিতর্ক | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 27.10.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞান পরিবেশ

বাংলা উইকি’র পরিধি বাড়লেও মান নিয়ে বিতর্ক

বিশ্বব্যাপী উইকিপিডিয়ার জনপ্রিয়তা বাড়ছে৷ বিভিন্ন বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্যের এক নির্ভরযোগ্য যোগানদাতা উইকি৷ বাংলা ভাষাতেও রয়েছে উইকি’র সংস্করণ৷ বাংলা উইকিতে ভুক্তির সংখ্যা বাড়ছে নিয়মিত, কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে এর মান নিয়ে৷

জার্মান ভাষাতেও রয়েছে উইকিপিডিয়া

জার্মান ভাষাতেও রয়েছে উইকিপিডিয়া

বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশগুলোর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম৷ কিন্তু আয়তনের হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্বে ৯৩তম; ফলে বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দেশগুলোর একটি... ইন্টারনেটে বাংলাদেশ সম্পর্কে বাংলায় এই তথ্যটুকু পেতে কতটুকু সময় লাগবে আপনার? চলুন আরো একটু খুঁজি৷

বাংলায় ‘সুন্দরবন'-এর আক্ষরিক অর্থ ‘সুন্দর জঙ্গল' বা ‘সুন্দর বনভূমি'৷ সুন্দরী গাছ থেকে সুন্দরবনের নামকরণ হয়ে থাকতে পারে, যা সেখানে প্রচুর জন্মায়৷ এই তথ্যটুকুও ইন্টারনেটে এখন পাওয়া যায় মুহূর্তের মধ্যে৷ বাংলাদেশের বর্তমান ইন্টারনেট প্রজন্মের কল্যাণে এমন সব তথ্য সহজলভ্য হচ্ছে সবার কাছে৷ উইকিপিডিয়া নামক মুক্ত বিশ্বকোষে যুক্ত হচ্ছে বাংলায় এমন নানা তথ্য৷

বাংলা উইকি

উইকিপিডিয়ার বাংলা সংস্করণে স্বাগতম৷ এই বিশ্বকোষে যে কেউ অবদান রাখতে পারেন৷ ২১,৮৫১টি ভুক্তির উপর কাজ চলছে - বাংলা উইকিপিডিয়ার প্রথম পাতায় শোভা পাচ্ছে এই বার্তা৷ যেখানে পরিষ্কার আহ্বান, আসুন আপনার জ্ঞানটুকু তুলে দিন উইকিতে৷

৩৬০ বছরের পুরাতন ও পুরাতাত্ত্বিক গুরুত্ববহ পুরনো ঢাকার চুড়িহাট্টা মসজিদ, মানুষের আগ্রাসনে ২০০৮ সালের জুলাই মাসে এটি সম্পূর্ণ বিলুপ্ত হয়ে যায় - এই তথ্যটিও উইকিপিডিয়া থেকেই নেওয়া৷ উইকির ‘আপনি জানেন কি' অংশে থাকে ছোট ছোট তথ্য কণিকা৷ প্রথম পাতায় সেগুলো ক্রমানুসারে প্রদর্শিত হয়৷ রয়েছে বাংলায় খোঁজারও ব্যবস্থা৷ বাংলা উইকির অন্যতম প্রশাসক বেলায়েত হোসেন এই প্রসঙ্গে জানান, বর্তমানে বাংলা উইকিপিডিয়ার নিবন্ধিত গ্রাহকের সংখ্যা ১৬ হাজার৷

Young Global Leaders Jimmy Wales

উইকি’র অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা জিমি ওয়েলস

মান নিয়ে প্রশ্ন

বাংলা উইকিপিডিয়া গড়ে তুলতে তরুণ প্রজন্মের চেষ্টা লক্ষণীয় হলেও, এর মান নিয়ে খানিকটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে৷ বিশেষ করে সেখানে যুক্ত নানান ভুক্তিতে তথ্যের ঘাটতি চোখে পড়ার মতো৷ মোটের ওপর সংযুক্ত তথ্যের সূত্রও থাকে না অনেক সময়৷ তাই, এই উইকির গ্রহণযোগ্যতা এখনো এক বিতর্ক৷ জনপ্রিয় বাংলা ব্লগার আলী মাহমেদ এই প্রসঙ্গে বলেন, বাংলা উইকি এখনো অনেক অসম্পূর্ণ৷ ছোট্ট একটা উদাহরণ দেই, ডয়চে ভেলে লিখে সেখানে সার্চ দিলে ছয় লাইনের বেশি কিন্তু পাবেননা৷ যদিও ইংরেজি উইকির সঙ্গে তুলনা চলে না, তারপরও দু'টোকে পাশাপাশি দাঁড় করালে খানিকটা আঁচ পাওয়া যাবে৷ যেখানে ইংরেজি উইকিতে ৩৫ লক্ষ আর্টিকেল, সেখানে বাংলায় মাত্র ২২ হাজার ভুক্তিতে কাজ চলছে৷ তিনি বলেন, যেহেতু আমি বাংলায় লেখালেখি করি, স্বভাবতই চাইবো বাংলা উইকিকে সূত্র হিসেবে ব্যবহার করতে৷ কিন্তু সেটা সম্ভব হচ্ছে না৷ এটা আমার জন্য খানিকটা কষ্টেরও৷

ঠিক এই বিষয়টি নিয়েই আমরা কথা বলি বেলায়েত হোসেনের সঙ্গে৷ তাঁর মতে, এই পরিস্থিতির পরিবর্তন আসবে তখনই, যখন আমরা আরো বেশি কন্ট্রিবিউটর বা অবদানকারী পাবো৷ তিনি বলেন, ২০০৪-এ যখন আমরা শুরু করেছিলাম, তখন পরিস্থিতি আরো খারাপ ছিল৷ এখন ২০১০ সালে এসে অনেকটা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে, কারণ আমরা অনেক বেশি মানুষকে উইকি সম্পর্কে জানাতে পেরেছে৷ ফলে অনেকে আগ্রহী হয়ে উইকিতে অবদান রাখে৷ আস্তে আস্তে এই অবদানকারীর সংখ্যা বাড়ছে, অবদান বাড়ছে৷ সঙ্গে নিবন্ধের সংখ্যা এবং মানও বাড়ছে৷

প্রয়োজন পৃষ্ঠপোষকতা

বেলায়েতের মতে, বাংলা উইকিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন৷ সেইসঙ্গে তরুণ প্রজন্ম বিশেষ করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে উইকি সম্পর্কে সচেতনতাও গড়ে তুলতে হবে৷ সে চেষ্টা অবশ্য বাংলাদেশে রয়েছে৷ কিন্তু পরিধি এখনো সীমিত৷

মোবাইলে উইকি

প্রযুক্তিগত দিক থেকে কিন্তু মোটেই পিছিয়ে নেই বাংলা উইকি৷ এটি পড়া যাবে মোবাইলেও৷ ঠিকানা: bn.m.wikipedia.org৷ এজন্য মোবাইলে বাংলা পড়ার সুবিধা থাকতে হবে৷ অপেরা মোবাইল ব্রাউজার একাজে সহায়ক৷

বাংলা উইকিপিডিয়াতে সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন ২০ থেকে ২৫ জন তরুণ৷ তবে, এই উইকির উন্নয়নে আরো তরুণের সক্রিয় অংশগ্রহণ প্রয়োজন৷ বিশেষ করে বাংলা ব্লগারদের সুযোগ রয়েছে এখাতে কাজ করার৷ কেননা, মুক্ত এ তথ্য ভাণ্ডার আমাদের ভাষাকেই তো সমৃদ্ধ করছে৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

বিজ্ঞাপন