বহুতল ভবনের জন্য সুখবর ‘যমজ-লিফট′ | অন্বেষণ | DW | 22.08.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

বহুতল ভবনের জন্য সুখবর ‘যমজ-লিফট'

বহুতল ভবন লিফট ছাড়া ভাবাই যায় না৷ কিন্তু দীর্ঘ অপেক্ষা, মানুষের ভিড়, থামতে থামতে ওঠানামা করার ধকলও কম নয়৷ জার্মানির এক লিফট কোম্পানি এক অভিনব উপায়ে এই সব সমস্যা কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে৷

লিফট ছাড়া অফিস, হোটেল বা বহুতল বাড়ির মতো আধুনিক স্থাপত্য সম্ভব হতো না৷ ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ প্রতিদিন এই আরাম ভোগ করেন৷ কেই বা হাজার হাজার সিঁড়ি ভাঙতে চায়! লিফট এর মধ্যে শব্দহীন, দ্রুত ও আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে৷  উন্নত মানের লিফট সেকেন্ডে ১৩ মিটার পর্যন্তগতিতে ওঠানামা করতে পারে৷

ট্যুসেন-ক্রুপ গোটা বিশ্বের সেরা লিফট প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলির মধ্যে অন্যতম৷ সংস্থার ইঞ্জিনিয়াররা ‘টুইন' নামের এক সিস্টেম তৈরি করেছেন, যা দুটি লিফটকে একটির মধ্যে এনে দিয়েছে৷ বিশ্বে এই প্রথম এমনটা সম্ভব হয়েছে৷ ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ইয়র্গ ম্যুলার ও তাঁর সহকর্মীরা এই যমজ লিফট তৈরি করেছেন৷ বিশেষ করে বড় শহরে কম জায়গায় তৈরি ভবনে এমন লিফট খুবই কাজে লাগতে পারে৷ ম্যুলার বলেন, ‘‘যেখানে বাড়িভাড়া বেড়ে চলেছে, সেখানেই সবচেয়ে বেশি চাহিদা রয়েছে৷ যেমন অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন বা মস্কো শহর৷ আরও বেশি করে মানুষ শহরে বসবাস করছেন৷ এই প্রবণতার ফলে সেখানে আরও কার্যকর ভবনের পরিকল্পনা করতে হবে৷''

‘টুইন' ব্যবস্থায় একই শ্যাফট বা সুড়ঙ্গের মধ্যে দু'টি লিফট পরস্পরের উপর নির্ভর না করেই ওঠানামা করতে পারে৷ ফলে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কম জায়গা লাগে৷ লিফটে ওঠার আগেই ডিসপ্লে-তে জানিয়ে দিতে হয়, কোন তলায় যেতে হবে৷ কোন লিফট সবচেয়ে দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছে দেবে, সিস্টেম তখন হিসেব করে তা স্থির করে দেয়৷

বহুতল ভবনে দিনে প্রায় ১০,০০০ মানুষ লিফট ব্যবহার করেন৷ নিরাপত্তা এক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷ নিয়মিত সেদিকে নজর রাখা হয়, রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়৷ ‘টুইন' ব্যবস্থার জন্য বহুস্তরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে, যাতে দুটি লিফটের মধ্যে কোনো সংঘাত না ঘটে এবং কোনো বিঘ্ন ছাড়াই গোটা ব্যবস্থা চালু থাকে৷

দু'বছর পর পর নিরপেক্ষ বিশেষজ্ঞরা ‘টুইন' লিফট ব্যবস্থা পরীক্ষা করেন৷ মনে রাখতে হবে, লিফট বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ পরিবহণ মাধ্যমের অন্যতম৷ ‘টুইন' ব্যবস্থা প্রয়োগ করে অপেক্ষার সময়, খালি লিফটের ওঠানামা এবং বিভিন্ন তলায় থামার মাত্রা অনেকটাই কমানো সম্ভব হয়েছে৷ লিফটের কেবিনে স্থাপত্যের নতুন ধারা প্রয়োগ করা যাচ্ছে৷ ফলে এবার আরও উঁচু বহুতল ভবন তৈরি করা যেতে পারে৷ ইয়র্গ ম্যুলার বলেন, ‘‘পরিকল্পনার দৃষ্টিভঙ্গি থেকে আমরা স্থপতিরা আরও দক্ষতার সঙ্গে বহুতল ভবন সাজাতে পারি৷ প্রচলিত লিফট ব্যবস্থা দিয়ে তা কার্যত সম্ভব নয়৷'' ‘টুইন' ব্যবস্থার মাধ্যমে ইঞ্জিনিয়াররা আন্তর্জাতিক মেগাসিটিগুলির বর্তমান চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে এক ধাপ এগিয়েছেন৷ গোটা বিশ্বে ৫০টি বড় প্রকল্পে এই লিফট ব্যবস্থা তৈরি করা হচ্ছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

বিজ্ঞাপন