বলিউডে হৃত্বিকের ‘সুপার ৩০’ | বিশ্ব | DW | 14.01.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ভারত

বলিউডে হৃত্বিকের ‘সুপার ৩০’

দেখতে দেখতে কুড়ি বছর হয়ে গেল হৃত্বিক রোশনের৷ বলিউডের তারকা হিসাবে কুড়িটি বসন্ত পার করে দিলেন তিনি৷

মনে হতেই পারে, এই তো সেদিন বলিউডের জীবন শুরু করলেন হৃত্বিক রোশন৷ 'কহো না পেয়ার হ্যায়' করলেন, ছবি সঙ্গে সঙ্গে হিট৷ হৃত্বিক রাতারাতি জনপ্রিয়তার শিখরে৷ তখন অবশ্য তিনি বলিউডের 'চকোলেট বয়'৷ প্রেমিক ইমেজ৷ এর পরের কুড়ি বছরে 'চকোলেট বয়' থেকে বলিউডের গ্রিক দেবতার শিরোপা। কিন্তু সম্প্রতি ছক ভাঙা অভিনয় করার দিকে ঝুঁকেছেন৷ ‘সুপার ৩০’ তারই ফসল৷

'কহো না পেয়ার হ্যায়' মুক্তি পেয়েছিল ২০০০ সালের ১৪ জানুয়ারি৷ টাইটেল সঙও হল 'কহো না পেয়ার হ্যায়'৷ তার সঙ্গে হৃত্বিকের অভিনয় ও নাচ৷ সুপার ডুপার হিট৷ ফলে আর পিছনে পিরে তাকানোর কোনও প্রয়োজন হয়নি৷ 'কোই মিল গয়া', 'কৃশ', 'ফিজা', 'সুপার ৩০', 'ওয়ার'--একের পর এক ছবিতে নিজের প্রতিভাকে মেলে ধরেছেন তিনি৷ নিজের ইমেজকে ভেঙেছেন, নতুন করে গড়েছেন৷

'কোই মিল গয়া' তে রোহিতের ভূমিকায় অভিনয় করা হৃত্বিকের সারল্য যেমন দর্শককে মুগ্ধ করেছে, তেমনই রোমাঞ্চিত করেছে 'যোধা আকবর' বা 'সুপার ৩০' তে তাঁর পরিণত সিরিয়াস অভিনয়৷ 'ধুম ২', 'গুজারিশ', 'কাবিল', 'ব্যাং ব্যাং' সহ একের পর এক সিনেমায় হৃত্বিকতাঁর ফ্যানদের চাহিদা পূরণ করেছেন৷

হৃত্বিকের বড় শক্তি হল, নাচে অনায়াস দক্ষতা এবং সিক্স প্যাক শরীর৷ ২০১৯ এ পরপর দুটি হিট ছবি তাঁর পকেটে৷ 'সুপার ৩০' এবং 'ওয়ার৷' এ বার নতুন বছরে অভিনেতা হৃত্বিকের আরও নতুন দিগন্ত খোলার অপেক্ষায়  থাকলাম আমরা৷

জিএইচ/এসজি (টিওআই)

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন