বরিস জনসনের বাবা ফ্রান্সের নাগরিক হতে চান | বিশ্ব | DW | 01.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্য

বরিস জনসনের বাবা ফ্রান্সের নাগরিক হতে চান

ব্রেক্সিটের পর আর যুক্তরাজ্যে থাকবেন না প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বাবা স্ট্যানলি। তিনি ফরাসি নাগরিক হওয়ার আবেদন জানাবেন।

বরিস জনসনের বাবা স্ট্যানলি জনসন।

বরিস জনসনের বাবা স্ট্যানলি জনসন।

ব্রেক্সিট তাঁর পছন্দ নয়। তাই যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের বাবা স্ট্যানলি জনসন আর ব্রিটেনে থাকতে চান না। তিনি ফ্রান্সের নাগরিক হওয়ার জন্য আবেদন জানাবেন বলে জানিয়েছেন।

চার বছর আগে ২০১৬-র গণভোটে তিনি ইইউতে থাকার পক্ষেই ভোট দিয়েছিলেন। বাবা ও ছেলে এই বিষয়ে পুরো উল্টো মেরুর বাসিন্দা। স্ট্যানলির দাবি, ''আমি বরাবরই ইউরোপীয়ান। আপনি কখনোই ইংরেজদের বলতে পারেন না, তাঁরা ইউরোপীয়ান নন। ইইউ-র সঙ্গে যোগ থাকা জরুরি।''

কিন্তু যুক্তরাজ্য থেকে কেন ফ্রান্সের নাগরিক হতে চান তিনি? ফরাসি রেডিও আরটিএল-তে স্ট্যানলি জানিয়েছেন, ''আমাকে তো ফরাসিই বলতে পারেন। আমার দিদিমা ফরাসি ছিলেন। আমার মায়ের জন্ম ফ্রান্সে।''

স্ট্যানলির বয়স ৮০ বছর। তিনি আগে ইইউ পার্লামেন্টের সদস্য ছিলেন। তবে ডিসেম্বরে টাইমসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, এখন তিনি মত পরিবর্তন করেছেন। তিনিও ব্রেক্সিটের পক্ষে। কিন্তু ব্রেক্সিট হওয়ার পর এখন আবার আগের মতেই ফিরে গেছেন স্ট্যানলি।

জিএইচ/এসজি(এএফপি, এপি, ডিজিএ,রয়টার্স)