′বন্দুকযুদ্ধে′ নিহত তিন রোহিঙ্গা | বিশ্ব | DW | 07.06.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত তিন রোহিঙ্গা

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে‘ নিহত হয়েছে তিন রোহিঙ্গা৷ নিহতদের সবাই শিশু অপহরণের সঙ্গে জড়িত বলে দাবি করেছে পুলিশ৷

Crossfire - an exhibition EINSCHRÄNKUNG (Shahidul Alam/Drik/Majority World)

প্রতীকী ছবি

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা প্রদীপ কুমার জানিয়েছেন, লেদা শরণার্থী ক্যাম্পের পাশের এক পরিবারের শিশু অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা৷ এমন তথ্যের ভিত্তিতে, শুক্রবার ভোর রাতে টেকনাফের পাহাড়ি এলাকায় অপহৃত শিশু উদ্ধারে অভিযানে নামে পুলিশ৷

প্রদীপ কুমার বলেন, অভিযানে অপহরণকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে প্রথমে গুলি ছোঁড়ে৷ পাল্টা জবাবে পুলিশও তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে৷ এসময় তিন অপহরণকারী নিহত হয় বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা৷

অপহৃত শিশুকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে বলেও জানান প্রদীপ কুমার৷ তবে, পালিয়ে গেছে অপহরণকারীদের অন্য সহযোগীরা৷  ঘটনাস্থল থেকে বন্দুক এবং বুলেট উদ্ধার করেছে পুলিশ৷

কয়েক দিনে আগে, শরণার্থী শিবিরের কাছ থেকে শিশুটিকে অপহরণ করা হয়৷ এরপর পরিবারের কাছে পাঁচলাখ টামা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা৷

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ২০১৭ সালে মিয়ানমারে জাতিগত সহিংসতার স্বীকার হয়ে প্রায় দশ রাখ রোহিঙ্গা টেকনাফে আশ্রয় নিয়েছে৷ তাদের মধ্য কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা খুন, শিশু অপহরণ ও পাচার এবং মাদক চোরাচালানের মতো নানা অপরাধের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়েছে৷

টিএম/কেএম (ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন