বজ্রপাতে সাত জনের প্রাণহানি | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 18.05.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বজ্রপাতে সাত জনের প্রাণহানি

বজ্রপাতে মঙ্গলবার বিকালের দিকে নেত্রকোণার কেন্দুয়া, খালিয়াজুরী ও মদন উপজেলায় নিহত হয়েছেন সাতজন আর আহত আরও তিন জন৷

নিহতরা হলেন কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউপির বৈরাটি গ্রামের আসন খানের ছেলে বায়েজিদ (৪২), কান্দিউড়া ইউপির কুণ্ডলী গ্রামের তরব আলীর ছেলে ফজলু মিয়া (৫৫), খালিয়াজুরী উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের ছেলু ফকিরের ছেলে ওয়াছেক মিয়া (৩৫), আমীর সরকারের ছেলে বিপুল মিয়া (৩২) এবং বাতুয়াইল গ্রামের মঞ্জুরুল হকের ছেলে মনির হোসেন (২৮), মদন উপজেলার ফতেপুর গ্রামের আব্দুল মন্নাফের ছেলে আতাবুর (২১) এবং আব্দুল কাদিরের ছেলে শরিফ (১৮) ৷

আহতরা হলেন মদনের ফতেপুর গ্রামের মুসা মিয়ার ছেলে রবিন (১৫), হিরন মিয়ার ছেলে রোমান (১৮) এবং চন্দন মিয়ার স্ত্রী সুরমা আক্তার (২২) ৷  উপজেলার ফতেপুর গ্রামের আব্দুল মন্নাফের ছেলে আতাবুর (২১) এবং আব্দুল কাদিরের ছেলে শরিফ (১৮) ৷

খালিয়াজুরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, বিকাল সোয়া ৩টার দিকে বজ্রসহ ভারি বৃষ্টি হচ্ছিল ৷ এ সময় পুটিয়ার খালে ওয়াছেক, বিপুল ও মনির মাছ ধরছিলেন৷ তখন বজ্রপাতে তারা ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান ৷

মদন থানার ওসি ফেরদৌস আলম জানান, বেলা ৩টার দিকে বৃষ্টিপাতের মধ্যে বাড়ির সামনের মাঠে খেলতে গিয়ে বজ্রপাতে প্রাণ হারান আতাবুর ও শরিফ; আহত হন রবিন ও রোমান ৷ এছাড়া বাড়ির সামনে কাজ করার সময় বজ্রপাতে আহত হন সুরমা আক্তার ৷

ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে ওসি ফেরদৌস জানান, স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠিয়েছে৷

এনএস/কেএম (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম) 

নির্বাচিত প্রতিবেদন