বঙ্গোপসাগর থেকে ১৪ ভারতীয় জেলে আটক | বিশ্ব | DW | 10.12.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বঙ্গোপসাগর থেকে ১৪ ভারতীয় জেলে আটক

বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ সীমায় অনুপ্রবেশ করে মাছ ধরার অভিযোগে দেশটির কোস্টগার্ড একটি ট্রলারসহ ১৪ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে৷

Indien Ghoramara Island (Reuters/R. De Chowdhuri)

ফাইল ফটো

মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের বরাত দিয়ে ডয়চে ভেলের কনটেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এ তথ্য জানায়৷

জোনের সদর দপ্তরের গোয়েন্দা কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, মঙ্গলবার ভোরের দিকে মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৯৫ নটিক্যাল মাইল দূরে বঙ্গোপসাগরে সুন্দরবন উপকূলের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে ওই ভারতীয় জেলেদের আটক করা হয়।

ওই এলাকায় টহলরত কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের আটক করে মোংলায় নিয়ে যান৷ পরে তাদের মোংলা থানায় হস্তান্তর করা হয়।

আটক জেলেদের বিরুদ্ধে সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশ ১৯৮৩-এর ২২ ধারায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার ওসি মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী।

ওই ভারতীয় জেলেদের সবার বাড়িই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগোনা জেলার বিভিন্ন এলাকায়। তাদের ট্রলার থেকে ১ হাজার ২২০ কেজি বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ও জাল-দড়ি জব্দ করা হয়েছে।

কোস্টগার্ড কর্মকর্তা মাহমুদ বলেন, এফবি মা-আম্বিয়া-২ নামের একটি ফিশিং ট্রলার নিয়ে তারা বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশ জলসীমায় ঢুকে মাছ ধরছিলেন।

বিকালে তাদের বাগেরহাট আদালতের নির্দেশে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে  বলেও জানান তিনি৷

এর আগেও বেশ কয়েকবার একই অভিযোগে ওই এলাকা থেকে ভারতীয় জেলেদের আটক করা হয়।

এছাড়া, নৌবাহিনীর সদস্যরা গত ১ অক্টোবর ১৫ জন, ৪ অক্টোব ২৩ জন, ১৪ অক্টোবর ১১ জন, ২২ অক্টোবর ১৪ জন ভারতীয় জেলেকে আটক করে। এখনও অনেক ভারতীয় জেলে বাগেরহাট কারাগারে রয়েছেন বলে জানায় পুলিশ৷

এসএনএল/এসিবি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন