বঙ্গবন্ধু, জাতীয় ৪ নেতা ও জিয়াকে রেখে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রথম তালিকা প্রকাশ | বিশ্ব | DW | 25.03.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু, জাতীয় ৪ নেতা ও জিয়াকে রেখে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রথম তালিকা প্রকাশ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা ও জিয়াউর রহমানসহ এক লাখ ৪৭ হাজার ৫৩৭ জন মুক্তিযোদ্ধার প্রথম তালিকা প্রকাশ করেছে সরকার৷ তালিকায় ১৯১ জন শহীদ বুদ্ধিজীবীর নামও রয়েছে৷

ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম জানায়, বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক মুক্তিযোদ্ধাদের এই তালিকা প্রকাশ করেন৷

তালিকায় জিয়াউর রহমান এবং বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনিদের পাশাপাশি খন্দকার মোশতাক আহমেদের নামও রয়েছে৷

তবে মন্ত্রী জানিয়েছেন, তালিকায় তাদের নামের পাশে মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তি ‘অপকর্ম’ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য লেখা থাকবে৷

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘‘প্রথম পর্যায়ে একলাখ ৪৭ হাজার ৫৩৭ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে সরকার৷ জুনের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পূর্ণ ও চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা সম্ভব হবে৷’’

মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটেও এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি৷

তালিকায় বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি মোশতাক ও জিয়ার নাম থাকার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘‘তাদের খেতাব বাতিল করা হয়েছে৷ কিন্তু তারা তো মুক্তিযুদ্ধ করেছেন৷ তারা যুদ্ধ করেননি- এটা তো বলতে পারবো না৷ তা হলে তো ইতিহাসের বিকৃতি হবে৷’’

‘‘যদি বলি জিয়াউর রহমান যুদ্ধ করেনি- এটা তো ঠিক হলো না৷ সে তো সেক্টর কমান্ডার ছিল, যুদ্ধ করেছে৷ পরবর্তীকালে কী কাজ করেছেন- এটার শাস্তি হতে পারে৷’’

বঙ্গবন্ধু হত্যাসহ তাদের ‘অপকর্ম বা চেতনাবিরোধী’ কাজের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘‘সেজন্য মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে যেসব সুবিধা তারা পেয়েছেন, যেগুলো বাতিলযোগ্য, সেগুলো বাতিল করা হয়েছে৷’’

আরেক প্রশ্নের জবাবে মোজাম্মেল হক বলেন, ‘‘খন্দকার মোশতাক মুজিবনগর সরকারে ছিলেন৷ তবে এটাও সত্য তিনি বঙ্গবন্ধু হত্যার সাথে জড়িত৷ পরে তিনি অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছিলেন৷

‘‘সেই হিসেবে মন্ত্রী হওয়ার পরে ডান দিকে লেখা থাকবে বঙ্গবন্ধুর খুনি হিসেবে অভিযুক্ত ছিল, তার বিরুদ্ধে চার্জশিটও হয়েছে৷ বিচার হয়নি, কারণ, তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন৷’’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘‘শহীদ বুদ্ধিজীবীদের তালিকার জন্য দেশের প্রখ্যাত গবেষকদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হয়েছে৷ প্রথম ধাপে আমরা ১৯১ জন শহীদ বুদ্ধিজীবীর তালিকা প্রকাশ করছি৷

‘‘যাচাই-বাছাই শেষে ধাপে ধাপে আরো তালিকা প্রকাশ করা হবে৷ এই তালিকাও আগামী ৩০ জুনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ করা হবে৷’’

এক লাখ ৪৭ হাজার ৫৩৭ জনের বীর মুক্তিযোদ্ধা তালিকার মধ্যে বরিশালের ১২ হাজার ৫৬৩ জন, চট্টগ্রামের ৩০ হাজার ৫৩ জন, ঢাকার ৩৭ হাজার ৩৮৭ জন, ময়মনসিংহের ১০ হাজার ৫৮৮ জন, খুলনার ১৭ হাজার ৬৩০ জন, রাজশাহীর ১৩ হাজার ৮৮৯ জন, রংপুরের ১৫ হাজার ১৫৮ জন এবং সিলেট বিভাগের ১০ হাজার ২৬৪ জন রয়েছেন৷

এসিবি/জেডএইচ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

সংশ্লিষ্ট বিষয়