ফ্লোরিডায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণের পথে প্রথম পদক্ষেপ | বিশ্ব | DW | 08.03.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

ফ্লোরিডায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণের পথে প্রথম পদক্ষেপ

পার্কল্যান্ডের একটি স্কুলে হত্যাকাণ্ডের তিন সপ্তাহ পর ফ্লোরিডা রাজ্যে বন্দুকে তথাকথিত ‘বাম্প স্টক’ লাগানো নিষিদ্ধ করা সংক্রান্ত একটি বিল পাস করা হয়েছে৷ সেইসঙ্গে বন্দুক কেনার ন্যূনতম বয়সও বাড়ানো হচ্ছে৷ 

ফ্লোরিডার আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনটির নাম রাখা হয়েছে ‘মার্জরি স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুল পাবলিক সেফটি অ্যাক্ট৷’ বুধবার সেটি পাস হবার পরে এখন শুধু গভর্নর রিক স্কটের স্বাক্ষর বাকি৷ এই আইন বন্দুক কেনার স্বাধীনতার অংশত সীমিত করবে, অপরদিকে স্কুলের কিছু শিক্ষক ও কর্মীকে বন্দুকধারণের অনুমতি দেবে৷

বিলের মূল সূত্র:-

-    আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ থেকে বাড়িয়ে ২১ করা হবে;

-    যাবতীয় আগ্নেয়াস্ত্র ক্রয়ের আগে তিন দিন অপেক্ষা করতে হবে;

-    ‘বাম্প স্টক’ লাগিয়ে আধা-স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রকে পুরোপুরি স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রে পরিণত করা নিষিদ্ধ করা হচ্ছে;

-    স্কুলের কর্মীদের অস্ত্রধারণ সম্ভব করা জন্য একটি ‘গার্ডিয়ান প্রোগ্রাম’ সৃষ্টি করা হচ্ছে;

-    মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য অর্থসংস্থান বাড়ানো হচ্ছে

তবে আন্দোলনকারী ও অভিভাবকদের একটি মুখ্য দাবি বাদ পড়েছে৷তাদের দাবি সত্ত্বেও এআর-১৫ অ্যাসল্ট উইপন নামের আগ্নেয়াস্ত্রটি নিষিদ্ধ করা হয়নি৷

সোমবার ফ্লোরিডার সেনেটে স্বল্প সংখ্যাগরিষ্ঠতায় গৃহীত হবার পর বিলটি বুধবার রাজ্যের হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসে ৬৭ বনাম ৫০ ভোটে গৃহীত হয় – অর্থাৎ হাউসের ১০ জন ডেমোক্র্যাট রিপ্রেজেন্টেটিভ রিপাবলিকানদের সঙ্গে যোগ দিয়ে বিলটি পাস করান৷ অপরদিকে বিলের বিরুদ্ধে ভোট দেন নয় জন রিপাবলিকান ও ৩১ জন ডেমোক্র্যাট রিপ্রেজেন্টেটিভ৷

তিনি বিলটি সমর্থন করেন কিনা, গভর্নর স্কট তা জানাননি; তবে ইতিপূর্বে তিনি ‘স্কুলশিক্ষকদের অস্ত্রধারণের’ প্রতি তাঁর বিরোধিতা জ্ঞাপন করেছেন৷

তথাকথিত ‘তত্ত্বাবধায়ক কর্মসূচির’ সমর্থকদের যুক্তি হলো, এই কর্মসূচি বাধ্যতামূলক নয়৷ কোনো স্কুলের কিছু শিক্ষক বা কর্মী যদি ছাত্র-ছাত্রীদের সুরক্ষার জন্য আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহারের প্রশিক্ষণ নিতে চান, তবে তাঁদের জন্য সে ব্যবস্থা থাকবে৷

আফ্রিকান অ্যামেরিকান বিধায়কদের বিশেষ চিন্তা হলো, স্কুলের সশস্ত্র শিক্ষক ও কর্মীরা উত্তেজনার মুহূর্তে সংখ্যালঘু ছাত্রদের দিকেই গুলি চালাবেন – পুলিশকর্মীদের মধ্যে যে প্রবণতা নিয়ে ইতিপূর্বে ঝড় উঠেছে এবং এখনও আন্দোলন চলেছে৷

অপরদিকে পার্কল্যান্ড স্কুল হত্যাকাণ্ডে হতাহতদের পরিবারবর্গের একাংশ বিলটি পাস হওয়ার ঘটনাকে প্রশংসা করে টুইট করেছেন এবং গভর্নর স্কটের প্রতি বিলটি স্বাক্ষর করার আহ্বান জানিয়েছেন৷ 

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অধিকারের ভিত্তি হলো মার্কিন সংবিধানের তথাকথিত ‘সেকেন্ড অ্যামেন্ডমেন্ট’ বা দ্বিতীয় সংশোধনী৷

যুক্তরাষ্ট্রে হ্যান্ডগান বা পিস্তলগোত্রীয় একহাতে চালানোর মতো আগ্নেয়াস্ত্র কেনার ন্যূনতম বয়স হলো ২১ – কিন্তু ফ্লোরিডায় ১৮ বছর বয়স হলেই রাইফেল কেনা যায়৷ কাজেই পার্কল্যান্ড স্কুলের হত্যাকারী বৈধভাবেই তার সেমি-অটোম্যাটিক রাইফেলটি সংগ্রহ করেছিল৷

এসি/এসিবি (রয়টার্স, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন