ফেসবুকে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা আবারও প্রশ্নের মুখে | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 29.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ফেসবুকে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা আবারও প্রশ্নের মুখে

ফেসবুকে তথ্য দেয়া কতটা নিরাপদ? এ প্রশ্নটি এখন প্রায়ই উঠছে৷ তথ্যের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত হয়ে অনেকেই ইতিমধ্যে ফেসবুক ব্যবহার থেকে সরে এসেছেন৷ এরই মধ্যে আরও একটি ঘটনা ফেসবুকের নিরাপত্তাকে আবারও প্রশ্নের সম্মুখীন করে তুলেছে৷

default

একজন কম্পিউটার নিরাপত্তা গবেষক সম্প্রতি প্রায় ১০০ মিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্যের একটি তালিকা তৈরি করেছেন৷ বিটটরেন্ট নেটওয়ার্কে এই তথ্যগুলো পাওয়া যাচ্ছে৷ এখানে বলে রাখি, ফেসবুকের বর্তমান ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৫০০ মিলিয়ন৷

রন বাউজ নামের ঐ কম্পিউটার নিরাপত্তা গবেষক বলছেন ফেসবুকের ‘পাবলিক ডিরেক্টরি' থেকে তিনি তথ্যগুলো সংগ্রহ করেছেন৷ উল্লেখ্য, এই পাবলিক ডিরেক্টরিতে ব্যবহারকারীদের ঐসব তথ্যই থাকে, যা ব্যবহারকারীরা নিজের ইচ্ছেতেই অন্যদের দেখার জন্য উন্মুক্ত করে রেখেছেন৷

নিশ্চয় ভাবছেন, তাহলে আর সমস্যা কোথায়? তাই না? কারণ, ব্যবহারকারীরা যা দেখাতে চান তাইতো পাওয়া যাবে রন বাউজের তৈরি ঐ তালিকাতে৷ তাই সে অর্থ সমস্যা যে খুব প্রকট তা কিন্তু নয়৷ তবে এর থেকে একটা বিষয় পরিষ্কার৷ আর তা হলো, যে কেউ খুব সহজেই পাবলিক ডিরেক্টরি থেকে অন্যের ইমেল ও বসবাসের ঠিকানা সহ অন্যান্য তথ্য পেয়ে যেতে পারে৷ আর এই বিষয়টি নিয়েই শঙ্কিত রন বাউজ৷ নিজের ব্লগে তিনি লিখেছেন, ‘‘ফেসবুকের প্রাইভেসি সেটিংস যে কতটা জটিল এবং একজন ব্যবহারকারীর তথ্য যে কীভাবে তাঁর অজান্তেই অন্যের কাছে চলে যাচ্ছে, এই বিষয়টিই আমি দেখাতে চেয়েছি৷''

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, এগুলো নতুন কোন তথ্য নয়৷ ব্যবহারকারীরা যা দেখাতে রাজি হয়েছে, কেবল সেগুলোই পাওয়া যাবে রন বাউজের তালিকাতে৷ এবং এই তথ্যগুলো গুগল বা বিং জাতীয় সার্চ ইঞ্জিনগুলোতেও পাওয়া যাচ্ছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন