ফেসবুকে ′নিষিদ্ধ′ ডনাল্ড ট্রাম্প | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 05.06.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্র

ফেসবুকে 'নিষিদ্ধ' ডনাল্ড ট্রাম্প

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ফেসবুক। চলতি বছরের জানুয়ারি ৭ থেকে শুরু হওয়া নিষেধাজ্ঞা  ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত বহাল থাকবে।

নিষিদ্ধ করার কারণ হিসেবে দেশটির র্নিবাচনের পর গত ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে হামলায় উস্কানিমূলক পোস্ট দেওয়ার কথা জানিয়েছে বলে জানায় জনপ্রিয় এ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি। হামলার ঘটনার পরদিন অর্থাৎ ৭ জানুয়ারি ডনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করেছিল ফেসবুক। এরপর ঘটনা পর্যালোচনা করে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞার কথা জানায় ফেসবুকের ইন্ডিপেন্ডেন্ট ওভারসাইট বোর্ড।

ফেসবুকের আন্তর্জাতিক বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট  নিক ক্লেগ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটিতে দেওয়া এক পোস্টে বলেন, "আমরা মনে করি তার কার্যক্রম বেশকিছু নিয়মকানুন মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন করেছে যা আমাদের নতুন প্রটোকল অনুযায়ী সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি রাখে।"

তিনি আরো জানান, দুই বছরের এ নিষেধাজ্ঞা শেষে ফেসবুকের বিশেষজ্ঞ দল ট্রাম্পের কার্যকলাপ প্লাটফর্মটিতে জননিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়ায় কিনা তা বিশ্লেষণ করে দেখবে। জননিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে হলে এ নিষেধাজ্ঞা আরো বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে ফেসবুকের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন ডনাল্ড ট্রাম্প। আবারো নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ এনে এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, ''ফেসবুকের এমন সিদ্ধান্ত দেশটির রেকর্ড সংখ্যক ৭৫ মিলিয়ন লোক যারা ২০২০ সালের কারচুপির নির্বাচনে আমাদের ভোট দিয়েছেন এবং অন্যদের প্রতি অপমান। এমন সেনসরিং বা মত দমন যারা করছে তাদের ছাড় পাওয়া উচিত নয়। তবে শেষ পর্যন্ত আমরা জিতবো।"

বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হওয়ার আশাও প্রকাশ করেন তিনি। ট্রাম্প বলেন, ''পরেরবার আমি যখন হোয়াইট হাউসে যাব তখন মার্ক জাকারর্বাগ ও তার স্ত্রীর সাথে আর কোনো ডিনারের আয়োজন করা হবে না।"

উল্লেখ্য, ক্যাপিটল হিলের ঘটনার পর টুইটার এবং ইউটিউবও স্থায়ীভাবে ডনাল্ড ট্রাম্পকে নিষিদ্ধ করে।

আরআর/এডিকে (রয়টার্স, এএফপি) 

সংশ্লিষ্ট বিষয়