ফেসবুকে এক নার্সের ক্ষুব্ধ বক্তব্য ভাইরাল | বিশ্ব | DW | 07.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

ফেসবুকে এক নার্সের ক্ষুব্ধ বক্তব্য ভাইরাল

মার্কিন এক সেবিকা কাজ শেষে রেগে গিয়ে ফেসবুকে একটি পরামর্শমূলক ভিডিও আপলোড করেছেন৷ গত দশদিনে সেটি ৯১ লাখের বেশিবার দেখা হয়েছে৷

কিন্তু কী আছে ঐ ভিডিওতে? ফ্লোরিডার এক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সেবিকা হিসেবে কাজ করেন ৷ সেখানে তিনি প্রতিদিন রোগীদের কাজকর্ম দেখতে দেখতে বিরক্ত৷ বিশেষ করে হাঁচি দেয়ার সময় হাতের তালুতে নাক ঢাকা এবং তারপর হাত না ধোয়া৷ লকলার মনে করেন, এর ফলে  জীবাণু চারদিকে ছড়িয়েপড়ে৷ কারণ হাত দিয়ে নাক ঢাকলে হাত জীবাণু আক্রান্ত হয়৷ পরে সেই হাত না ধুয়ে খাবার খেলে নিজের শরীর জীবাণু আক্রান্ত হতে পারে৷ এছাড়া গণপরিবহণসহ প্রকাশ্য কোনো স্থানে সেই হাত ছোঁয়ালে অন্যদের মাঝে জীবাণু ছড়িয়ে পড়ার আশংকা থাকে বলে মনে করেন লকলার৷

এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে একটি ‘ম্যাজিক ট্রিকও' শিখিয়েছেন তিনি৷ প্রায় ছয় মিনিটের এই ভিডিওর চার মিনিটের সময় গেলে সেই ট্রিকটি দেখা যাবে৷ লকলার দেখিয়েছেন, হাঁচি দেয়ার সময় হাতের তালুতে নাক না ঢেকে কনুইয়ের ভাঁজে নাক লুকাতে হবে৷ তাহলে সহজে জীবাণু ছড়াবে না৷

গত ২৭ জানুয়ারি নিজের ফেসবুকে ভিডিওটি আপলোড করেন লকলার৷ ১২ ঘণ্টা কাজ শেষে ‘আফটার ওয়ার্ক থটস' নামের ভিডিওটি তৈরি করেন তিনি৷ এখন পর্যন্ত সেটি প্রায় ৯২ লাখ বার দেখা হয়েছে৷ ভিডিওতে সচরাচর হাসপাতালে না যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি৷ এছাড়া সুস্থ সন্তান, বিশেষ করে নবজাতকদের হাসপাতালে না নিয়ে যেতে মা-বাবাদের পরামর্শ দেন লকলার৷

কিন্তু এমন শিক্ষামূলক ভিডিও এত মানুষ কেন দেখছেন? উত্তর জানতে নিজেই ভিডিওটি দেখে নিন৷

জেডএইচ/ডিজি (এপি) 

নির্বাচিত প্রতিবেদন