ফেসবুককে কড়া বার্তা জার্মানির | বিশ্ব | DW | 27.03.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

ফেসবুককে কড়া বার্তা জার্মানির

তথ্য গোপন রাখার বিষয়ে ফেসবুক কী পদক্ষেপ করছে, তা খোলাখুলি জানাতে হবে৷ ফেসবুক কর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে এ দাবিই রেখেছেন জার্মানির বিচারমন্ত্রী কাটারিনা বার্লে৷

কেবল মুখের কথায় কাজ হবে না, ফেসবুককে প্রমাণ করতে হবে যে, তারা জনগণের ব্যক্তিগত তথ্য গোপন রাখবে৷ শুধু তাই নয়, যে ৫ কোটি মানুষের তথ্য ফাঁস করেছে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা, তার মধ্যে জার্মানির কোনো নাগরিক থাকলে তা-ও জানাতে হবে৷  ফেসবুক কর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকেএমনই কড়া বার্তা দিলেন জার্মান বিচারমন্ত্রী কাটারিনা বার্লে৷ বস্তুত, বার্লের সঙ্গে বৈঠক করতে তাঁর দফতরে এসেছিলেন ফেসবুকের উচ্চপদস্থ কর্তারা৷ তাঁদের মধ্যে ছিলেন পাবলিক পলিসির প্রধান রিচার্ড অ্যালেন৷

সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমস এবং অজারভারে একটি খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেই বিশ্ব জুড়ে আলোড়ন পড়ে যায়৷ প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন নির্বাচনের আগে একটি অ্যাপের সাহায্যে কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা নামের একটি সংস্থা ফেসবুকের ৫ লক্ষ গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করে৷ সেই তথ্য পাঠিয়ে দেওয়া হয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের দফতরে, যা ব্যবহার করে ট্রাম্পের দফতর প্রত্যেক ব্যক্তির কাছে নির্দিষ্ট নির্বাচনী প্রচার চালায়৷ ফেসবুক কীভাবে ব্যক্তিগত তথ্য এভাবে প্রকাশ করে দিলো তা নিয়ে সরব হন অনেকেই৷ ভারত থেকে জার্মানি সর্বত্রই বিষয়টি নিয়ে শোরগোল পড়ে যায়৷ এরপরেই কড়া পদক্ষেপের কথা জানান জার্মান বিচারমন্ত্রী বার্লে৷ তিনি বলেন, ফেসবুক এবং তার অধিকর্তা সাকারবার্গকে এ বিষয়ে জবাবদিহি করতে হবে৷

বস্তুত, বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পর সাকারবার্গও প্রকাশ্যে ক্ষমা চান৷ সিএনএনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাকারবার্গ বলেন, বিষয়টি অবাঞ্ছিত৷ ভবিষ্যতে ফেসবুক তথ্য সুরক্ষার বিষয়ে আরো সতর্ক হবে৷

ফেসবুকের সঙ্গে বার্লের বৈঠকে ফেসবুক কর্তারাও একই কথা জানান৷ তাঁরা বলেন, ভবিষ্যতে তথ্য গোপন রাখার ক্ষেত্রে আরো সচেতন হবে ফেসবুক৷ কিন্তু বার্লে জানান, কেবলমাত্র মুখের কথা কাজ হবে না৷ ফেসবুককে তাদের বক্তব্য প্রমাণ করতে হবে৷ তথ্য গোপন রাখার বিষয়ে তারা কী পদক্ষেপ করছেন তা সকলকে জানাতে হবে৷ এবং যে ৫ লক্ষ গ্রাহকের তথ্য ফাঁস হয়েছে তার মধ্যে কোনো জার্মান থাকলে সে বিষয়েও জার্মান প্রশাসনকে জানাতে হবে এবং ওই ব্যক্তিকে অবহিত করতে হবে৷

এসজি/এসিবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন