ফুকুশিমার পারমাণবিক চুল্লি শীতল রাখার প্রাণান্ত চেষ্টা | বিশ্ব | DW | 17.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফুকুশিমার পারমাণবিক চুল্লি শীতল রাখার প্রাণান্ত চেষ্টা

ভূমিকম্প বা সুনামির ক্ষয়ক্ষতির চেয়েও জাপানে এখন বড় উদ্বেগ পরমাণু চুল্লি৷ ফুকুশিমার কমপক্ষে দুটি চুল্লি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, যেগুলো থেকে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ছে৷ এই চুল্লি দুটি শীতল রাখার প্রাণান্ত চেষ্টা করছে জাপান৷

default

ফুকুশিমায় হেলিকপ্টার ব্যবহার করে পানি ছেটানো হচ্ছে

বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সর্বশেষ পরিস্থিতি

ফুকুশিমার কমপক্ষে দু'টি ক্ষতিগ্রস্ত পারমাণবিক চুল্লি শীতল রাখার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে জাপান৷ সামরিক হেলিকপ্টার ব্যবহার করে সেগুলোর উপর পানি ছেটানো হচ্ছে৷ কিন্তু এই প্রক্রিয়া খুব একটা সফল হচ্ছে না বাতাসের কারণে৷ তাছাড়া কেন্দ্র সংশ্লিষ্ট এলাকায় তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা বেশি হওয়ায় একটি হেলিকপ্টার আরোহীসহ টানা চারবারের বেশি সেখানে পানি ছেটাতে পারছে না৷ এই অবস্থায় জল কামান ব্যবহার করেও চুল্লি দুটিতে পানি সরবরাহের চেষ্টা করা হচ্ছে৷ লক্ষ্য একটাই, পারমাণবিক জ্বালানি রডগুলো যেন কোনভাবে গলতে শুরু না করে৷ কেননা, সেক্ষেত্রে ভয়াবহ বিপর্যয়ের আশঙ্কা রয়েছে৷

Japan Erdbeben Tsunami Atomreaktor Flash-Galerie

ভূমিকম্প, সুনামি, তেজস্ক্রিয়তার সঙ্গে যোগ হয়েছে তুষারপাত

পশ্চিমা বিশ্ব উদ্বিগ্ন

শুধু পশ্চিমা বিশ্ব নয়, চীনও নতুন পারমাণবিক কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা স্থগিত রেখেছে৷ সেদেশের চাহিদার দুই শতাংশ বিদ্যুতের উৎস পরমাণু শক্তি৷ জার্মানি পুরনো সাতটি পারমাণবিক কেন্দ্র আপাতত বন্ধ রেখেছে৷ তাছাড়া ভবিষ্যৎ জ্বালানি বিষয়েও নতুন করে ভাবতে শুরু করেছে বার্লিন৷ বিশেষ করে পরমাণু শক্তি থেকে ক্রমান্বয়ে পুর্নব্যবহারযোগ্য জ্বালানীর দিকে অগ্রসর হতে চায় এই দেশ৷ এদিকে, ফুকুশিমা থেকে ছড়িয়ে পড়া তেজস্ক্রিয়তা সমুদ্র পেরিয়ে হাওয়ায় ভর করে রাশিয়ার ভ্লাডিভস্টক শহর অবধি ছড়িয়েছে৷ সেখানে তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে উপরে অবস্থান করছে৷ পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছে রাশিয়া৷ আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ফুকুশিমার সর্বশেষ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে মনুষ্যবিহীন ড্রোন বিমান ব্যবহারের প্রস্তাব করেছে৷

দুর্গতদের অবস্থা

শুক্রবারের নয় মাত্রার ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত নিহতের আনুষ্ঠানিক সংখ্যা পাঁচ হাজারের বেশি৷ সেদেশের পুলিশ জানিয়েছে, নিহতের সংখ্যা ৫,৪০০, আরো সাড়ে নয় হাজার মানুষ এখনো নিঁখোজ৷ সুনামিতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত জাপানের উত্তরপূর্বাঞ্চলে শীতের প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারণ করেছে৷ সেখানে কয়েক লাখ মানুষ গৃহহীন৷ দুর্গতরা পানি এবং বিদ্যুৎ সংকটের মধ্যে দিনযাপন করছেন৷ এই প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে জাপানের অর্থনীতিও ক্রমশ ভেঙে পড়ছে৷ বৃহস্পতিবার দুপুরে সেদেশের একটি ব্যাংকের সব টাকা তোলার মেশিন বন্ধ হয়ে যায়৷ শোনা যাচ্ছে, অনিশ্চিত ভবিষ্যতের আশঙ্কায় ব্যাংক থেকে বেশি করে টাকা তুলছেন সাধারণ মানুষ৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন