ফিনল্যান্ডে বরফগলা পানিতে সাঁতারের অভিজ্ঞতা | অন্বেষণ | DW | 19.06.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অন্বেষণ

ফিনল্যান্ডে বরফগলা পানিতে সাঁতারের অভিজ্ঞতা

অনেকেই সাঁতার কাটতে ভয় পান৷ বিশেষ করে পানি ঠাণ্ডা হলে সাঁতারুরাও ইতস্তত করে৷ ফিনল্যান্ডের এক শহরে বরফগলা পানিতে অভিনব প্রতিযোগিতা আয়োজন করা হয়৷ ডিডাব্লিইউ-র এক কর্মীর হাতেকলমে সেই অভিজ্ঞতা হয়েছে৷

ফিনল্যান্ডের ইওয়েনসু শহরে বরফের মাঝে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে৷ বাইরের তাপমাত্রা মাইনাস ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াস৷ তা সত্ত্বেও অংশগ্রহণকারীরা দিব্যি পানিতে নামছেন৷ ডিডাব্লিইউ-র এক কর্মী মাক্স মেরিল জানালেন, ‘‘ইউরোপের নানা অদ্ভুত ঐতিহ্যের সন্ধানে ফিনল্যান্ডের ইওয়েনসু শহরে এসেছি৷ এখানে বরফগলা পানিতে সাঁতারের প্রতিযোগিতা চলছে৷ আমিও সাহস করে কনকনে ঠাণ্ডা পানিতে নামছি৷ সত্যি ফিনল্যান্ডের মানুষ পাগল৷''

বাইরের মানুষ হিসেবে পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে মাক্স একদিন আগেই এখানে পৌঁছেছেন৷ স্থানীয় সাঁতারু সংঘের দপ্তরের সামনে প্রতিযোগিতার অন্যতম আয়োজক কির্সি হালটিয়ার সঙ্গে তাঁর দেখা হলো৷ মাক্স সবার আগে সত্যি জানতে চাইলেন, ফিনল্যান্ডের মানুষ কেন বরফগলা পানিতে নামে?

কির্সি জানালেন, ‘‘এটা শরীরকে শক্তি দেয়, এন্ডোরফিন হরমোন দেয়৷ দ্রুত ভালো মানের এন্ডোরফিন পাবার উপায় এটা৷ জগিং করার প্রয়োজন নেই৷ কয়েকবার বরফগলা কনকনে শীতল পানিতে নামলেই হবে৷ তখন সেই অনুভূতি পাওয়া যাবে৷’’

ভিডিও দেখুন 03:24

বরফগলা পানিতে সাঁতার

বড় এই প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বয়সের প্রতিযোগীদের জন্য আলাদা ইভেন্ট রয়েছে৷ অংশগ্রহণকারী হিসেবে একমাত্র হলের মধ্যে শরীর গরম করার নিয়ম রয়েছে৷ প্রতিযোগিতার আগে সাউনার কোনো ব্যবস্থা নেই৷ শেষবারের মতো নির্দেশ শুনে নিয়ে পানিতে নামার পালা৷ নিজেকে যেন বক্সার মনে হচ্ছে৷ জীবনের সবচেয়ে কঠিন সংগ্রামে চলেছেন মাক্স৷ বরফগলা পানির উপর ২৫ মিটার সাঁতার কাটতে হবে৷

সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ডাঙার উপরে অপেক্ষা করছে না৷ সেটা হলো শীত ও পানির প্রতি তাঁর সমীহ বা শ্রদ্ধাবোধ৷ ২৩ সেকেন্ড পর সাঁতার শেষ হলো৷ শীতের ফলে ভীষণ ব্যথা হচ্ছে৷ তবে সেই ব্যথা দ্রুত ভুলে যাওয়ার কারণ পাওয়া গেল৷ মাক্স সম্ভবত তৃতীয় স্থান পেয়েছেন, তবে এ বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নন৷ কির্সি উৎসাহ দিয়ে বলেন, ‘‘খুব ভালো করেছো, দারুণ৷ গতকালের আগে কখনো এমন সাঁতার না কেটেও আজ যা করলে, তা সত্যি অসাধারণ৷’’

বরফগলা পানিতে সাঁতারের পর বাথটবের গরম পানিতে নামার আনন্দই আলাদা৷

মাইকে ক্র্যুগার/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক