প্রিয় ফেসবুক, অপ্রিয় ফেসবুক | আলাপ | DW | 25.10.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

ব্লগ

প্রিয় ফেসবুক, অপ্রিয় ফেসবুক

বড় বিপদে আছে ফেসবুক৷ আজকাল তার বিরুদ্ধে মামলা হয়, মামলায় হেরে জরিমানাও গুনতে হয় তাকে৷ কোথাও আবার ফেসবুকের সঙ্গে সামান্য বিচ্ছেদেই শুরু হয় গণকান্নাকাটি৷ সব দেখি আর ভাবি, ‘‘ফেসবুক প্রিয় বেশি, নাকি অপ্রিয়?’’

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কণ্ঠ, সুর থাকলে আর বাংলা জানলে ফেসবুক নিশ্চয়ই মুখ বেজার করে গাইতো, ‘‘কারে বা জানাই বলো বেদনা আমার/ বুঝিলো না কেহ আমারে৷'' অথবা একদিকে তীব্র ঘৃণা, আরেকদিকে তীব্র প্রেমে ব্যতিব্যস্ত হয়ে হয়ত গাইতো, ‘‘কারে বা শোনাই বলো, কেইবা শোনে মোরে হায়, আমার মনের কথা কেউ জানে না৷'' 

ফেসবুকের মনের আসল কথাটা হলো, ‘‘নাও, এখানে যে যেভাবে চাও সময় কাটাও৷ যত খুশি সময় কাটাও৷ কারো পকেট কাটবো না, কিন্তু আমার পকেট ঠিকই ভারি হবে৷'' 

আর ওখানেই যত সমস্যা৷ ফেসবুকের ‘প্রেমিক/ প্রেমিকা' লাভ, লোভের শেষ নেই৷ বাজারটা খুবই বড়৷ ইধারকা মাল উধার করার সুযোগও অবারিত, অসীম৷তাই না জানিয়ে তথ্য পাচার চলছে অবিরাম৷ইদানিং ধরা পড়ে জরিমানাও গুনছে ফেসবুক৷ 

মাস তিনেক আগেই গোপনীয়তা লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছিল যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল ট্রেড কমিশন, এফটিসি৷ গুনে গুনে ৫০০ কোটি ডলার দিয়ে অভিযোগ থেকে মুক্তি পেয়েছে ফেসবুক৷ 

এন্তার অভিযোগ ফেসবুকের বিরুদ্ধে৷ ফেসবুক-আসক্তি আপনকে পর করছে৷ তাই বিবাহবিচ্ছেদ বাড়ছে৷ কিশোররা বখে যাচ্ছে৷ মতলববাজরা নানা মতলবে ব্যবহার করছে ফেসবুক৷ কেউ হিংসা-বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে, কেউ ছদ্মবেশে প্রতারণা করছে, কেউ বা গুজব রটিয়ে হামলা চালাচ্ছে দুর্বলের ওপর৷ এসব কারণে কেউ কেউ বিদায়ও নিচ্ছে ফেসবুক থেকে৷

তাতে বয়েই গেল! সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখনো ফেসবুক সবচেয়ে জনপ্রিয়৷ সারা বিশ্বে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা কত, জানেন? ২৩৫ কোটিরও বেশি!

সংখ্যাটা আরো বাড়ছে এবং বাড়তেই থাকবে৷ কারণ, ফেসবুক যে খুব বড় প্রেম! 

Ashish Chakraborty

আশীষ চক্রবর্ত্তী, ডয়চে ভেলে

এমন প্রেমের মাহাত্ম্য উপলব্ধি করে শরৎবাবু বহু আগেই লিখে গেছেন, ‘‘বড় প্রেম শুধু কাছে টানে না, দূরেও ঠেলিয়া দেয়৷'' সুতরাং কিছু মানুষ তো ফেসবুক ছেড়ে যেতেই পারে!

আমার কাছে অবশ্য ফেসবুক বড় প্রেম নয়, বড় প্রয়োজন৷ বড় প্রেম হলে হয়ত চাওয়া-পাওয়ার হিসেব কষতে হতো, হিসেবের গরমিলে মন ভাঙতো আর তখন হয়ত ছেড়েও যেতে হতো৷ আমার চাহিদা খুব কম৷ বন্ধু তালিকা দীর্ঘ করা বা অনুসারী বাড়ানোর কোনো ইচ্ছা বা তাগিদ আমার নেই৷ অল্প কিছু বন্ধু নিয়ে ছোট একটা পৃথিবীতে তাই দিব্যি আছি৷

প্রিয় পাঠক, আপনার কি কিছু বলার আছে? লিখুন নীচের মন্তব্যের ঘরে৷

বিজ্ঞাপন